ঢাকা, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬

2019-07-23

, ২০ জিলকদ ১৪৪০

প্রচার-প্রচারণায় এসেছে নতুনত্ব, চলছে বাণিজ্যও

প্রকাশিত: ০৮:৫৪ , ০৭ নভেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০৮:৩৬ , ০৮ নভেম্বর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: লাখ লাখ ভোটারের কাছে ব্যক্তিগতভাবে একজন প্রার্থীর বা তার কর্মীদের যাওয়া দু:সাধ্য ব্যাপার। তাই প্রচারণার কিছু উপকরণ প্রার্থীদের সহায়তা করে থাকে ভোটারদের কাছে তাকে পরিচিত করতে, তার বক্তব্যগুলোকে তুলে ধরতে। আর সেইসব উপকরণের জন্যই নির্বাচনকে ঘিরে নানা উপকরণের  জমজমাট বাণিজ্যের এক বিশাল মঞ্চ উন্মুক্ত হয়। তাই আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে ব্যস্ততা বাড়বে বহু ব্যবসা কেন্দ্রিক মানুষদের। সংক্ষিপ্ত ভোট মৌসুমে বাড়তি লাভের আশায় প্রস্তুতি নিচ্ছেন বহু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি।  

প্রচার প্রচারণায় পুরনো নানা অনুসঙ্গের সাথে এবার বাড়তি হিসেবে প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। তবে বরাবরের মতই পোষ্টার, মাইক ও ছোট ছোট প্রতীক থাকবে নির্বাচনী মাঠে। সম্ভব্য প্রার্থীরা নানান রং বেরঙ্গের ব্যানার পোষ্টারে এলাকা ছেয়ে ফেললেও তাতে ব্যস্ততার তেমন ছাপ নেই ছাপাখানাগুলোতে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নির্বাচন পূর্ব প্রচারের বিরাট অংশ এবার দখলে নিয়েছে ডিজিটাল প্রযুক্তি।

এদিকে আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে মৃতপ্রায় কিছু শিল্পকে যতোটা সম্ভব জাগিয়ে তুলতে চান ব্যবসায়ীরা। টাঙ্গাইলের বিড়ি শিল্প তার একটি। সংশ্লিষ্টরা জানালেন সরকারি বিভিন্ন বিধি নিষেধে বন্ধ প্রায় দেশীয় উদ্যোক্তাদের এই খাত। তবে নির্বাচনকে সামনে রেখে কিছুটা হলেও আশার আলো দেখছেন তারা। এই উৎসবের আমেজে নিজের ক্ষুদ্র ব্যবসার প্রসারের চিন্তা আছে রাস্তার পাশের এই চা বিক্রেতারও।

নির্বাচনী কিছু বিধি নিষেধের কারণে সাদাকালো পোষ্টার আর লিফলেট ছাড়া তফসিল ঘোষণার পর ছাপাখানাগুলোর তেমন কাজ নেই। তার জন্য কাগজ, কালি মজুদ করা আর মেশিন সংস্কারসহ সার্বিক প্রস্তুতি আছে এসব ব্যবসায়ীদের।

তবে এসবের বাইরে নির্বাচনকে সামনে রেখে ইতিমধ্যেই কিছুটা হলেও প্রস্তুতি নিয়েছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা।  কিছু বাড়তি পন্য উৎপদন ও মেশিনপত্র মেরামতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা।    

মাঠের রাজনৈতিক নেতা-কর্মী, ভোটের মাঠের বাণিজ্যের মানুষেরা এখন যার যা-ই প্রস্তুতি আর ব্যস্ততা থাকুক না কেন তা যে বহু গুণে বেড়ে যাবে আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সেটা তারা সবাই জানেন। ভোটের দিন যত কাছে আসবে অনেকের ঘুমের সময় ততো কমে যাবে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কাপ্তাই হ্রদ সৃষ্টির পরই কৃষিবাণিজ্য সম্প্রসারিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাহাড়ী এলাকা বিচিত্র কৃষিপণ্য উৎপাদনের বিশাল ক্ষেত্র হলেও সেখানের ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে কৃষি বাণিজ্যের ধারণা...

উচ্চ ফলনের তাগিদ ছিল না, কৃষি উন্নয়নে হয়নি গবেষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৩ সহস্রাধিক বর্গ কিলোমিটারের পার্বত্য চট্টগ্রাম ১৮৬০ সাল পর্যন্ত পরিচিত ছিল কোরপস নামে। ১৩০ বছর আগে এখানকার লোকসংখ্যা...

চাহিদার তুলনায় অর্ধেক সবজি উৎপাদন

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক দশকে উৎপাদন দ্বিগুণ হলেও চাহিদার তুলনায় অর্ধেক সবজি উৎপাদন হচ্ছে প্রতি বছর। দুর্বলতা ও সীমাবদ্ধতাগুলো দূর করে চাষের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is