ঢাকা, রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

2018-11-18

, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

নরসিংদীতে ছেলের হাতে বাবা খুন

প্রকাশিত: ১২:৪৪ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮ আপডেট: ১২:৪৪ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮

নরসিংদী প্রতিনিধি: নরসিংদীতে ছেলের শাবলের আঘাতে বাবা খুন হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মাসুম মিয়াকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ। 
শুক্রবার সকালে শহরের চৌয়ালা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফজলুল করীম (৫৫) ওই এলাকার বাসিন্দা। 

নরসিংদী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-ওসি সৈয়দুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, ফজলুল করিম চৌয়ালা মার্কেটে মুদি ব্যবসা করতেন। আর তা দিয়েই তিনি তার তিন ছেলে ও তিন মেয়েকে নিয়ে তার সংসার চলতেন। ছয় বছর আগে ফজলুলের প্রথম পক্ষের স্ত্রী মারা গেলে তিনি আবার বিয়ে করেন। এরপর তার মেঝো ছেলে মাসুম মিয়া বাবা ফজলুলকে সম্পদ ভাগ করে দিতে বলেন।

ফজলুল সম্পত্তি ভাগ না করায় মাসুম প্রায়ই তার সৎ মায়ের ওপর নির্যাতন করতেন। তার নির্যাতনের মাত্রা সইতে না পেরে ফজলুল তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীকে তার বাবার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। পরবর্তীতে মাসুম কিছুটা শান্ত হলে তিনি তার স্ত্রীকে বাপের বাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন। কিছুদিন পর মাসুম আবার তার সৎ মায়ের ওপর অত্যাচার শুরু করেন। 

এ নিয়ে সকালে আবারও মাসুমের সঙ্গে তার বাবার ঝগড়ার এক পর্যায়ে মাসুম শাবল দিয়ে ফজলুলকে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।
নিহতের স্ত্রী স্বপ্না আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, আমি বিয়ের পর থেকে এক দিনের জন্যও মাসুমের জন্য শান্তিতে সংসার করতে পারেনি। সে সব সময়ই সম্পদের জন্য আমার স্বামীকে চাপে রাখতো। সে নেশাগ্রস্ত হওয়ায় আমার স্বামী তাকে সম্পদ বাটোয়ারা করে দিতে চাইতো না। সম্পদের কারণেই মাসুম আমার স্বামীকে হত্যা করেছে।

ওসি সৈয়দুজ্জামান আরও বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছি। এ বিষয়ে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এই বিভাগের আরো খবর

পারিবারিক বিরোধেই আশুলিয়ায় বাবাকে ফেলে দিয়ে মেয়েকে হত্যা: পুলিশ

সাভার প্রতিনিধি: পারিবারিক বিরোধের জেরেই সাভারের আশুলিয়ায় চলন্ত বাস থেকে বাবাকে ফেলে দিয়ে মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is