ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫

2019-01-20

, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

হঠাৎ অদৃশ্য হয় যে প্রাণী

প্রকাশিত: ০৩:৩৮ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০৩:৩৮ , ০৯ নভেম্বর ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: সমুদ্রে কিছু প্রাণী অদৃশ্য হতে পারে। বিষয়টি নানা প্রশ্ন জাগায়। আসলে কি এমন প্রাণী আছে? হ্যাঁ, কিছু প্রাণী রয়েছে যারা নিজের দেহকে এমনভাবে লুকিয়ে ফেলে, যা অদৃশ্য হওয়ার মতোই বলা যায়। প্রাণীগুলোর মধ্যে গ্লাস অক্টোপাস ও গ্লাস স্কুইড অন্যতম।
গ্লাস স্কুইড: গ্লাস পরিবারের অন্তর্ভুক্ত প্রায় ৬০ প্রজাতির স্কুইড রয়েছে। সমুদ্রের ২০০ থেকে ১০০০ মিটারের মধ্যে বসবাস করে এরা। গ্লাস স্কুইডের শরীর পুরোপুরি স্বচ্ছ, তবে এদের বড় চোখগুলো অপ্রকাশিত।
এটি তাদের জন্য একটি সমস্যা। যেহেতু নিচের সাঁতার কাটা শিকারিরা সহজেই তাদের ছাড়া দেখতে পারে, এজন্য গ্লাস স্কুইড তাদের লুকানোর জন্য ছদ্মবেশের একটি চতুর রূপ ব্যবহার করে। চোখের নিচে একটি বিশেষ কৌশলে এরা আলো তৈরি করতে পারে। সেই আলো সূর্যালোক থেকে নিচে ফিল্টারিং হয়ে আসা আলোর অনুরূপ দেখায়। তাই এটি সম্পূর্ণরূপে নিচে সাঁতার কাটা শিকারিদের কাছে তখন অদৃশ্য করে তোলে।
পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা দেখেছেন, স্কুইড বিশেষ প্রক্রিয়ায় যে আলো সৃষ্টি করে তা বিস্ময়করভাবে চার দিকের অন্য আলোর সঙ্গে মিশে যায়। তখন এমন একটি বিভ্রম তৈরি করে যা দেখে মনে হয় আলোটি চতুর্দিক থেকে আসছে। এতে প্রাণীটির একটি ছদ্মবেশ তৈরি হয়।
গ্লাস অক্টোপাস: সমুদ্রে দুটি উপায়ে নিজেদের লুকায় সামুদ্রিক প্রাণী গ্লাস অক্টোপাস। এটি সাগরের তলদেশে বসবাসকারী প্রাণী বালি বা পাথরের সঙ্গে মিশে যেতে পারে কিংবা লুকিয়ে পড়তে পারে প্রবালের আড়ালে।

এই বিভাগের আরো খবর

কাঁচা হলুদের উপকারীতা

ডেস্ক প্রতিবেদন : আধুনিক নগর সভ্যতার চিরাচরিত ব্যস্ততা সামলাতে রসুইঘরেও এসেছে সহজে রান্নার নানা উপকরণ। গুড়ো মসলার ডামাডোলে কাঁচা মসলার...

অফিস লাঞ্চে স্বাস্থ্যকর ডায়েট

ডেস্ক প্রতিবেদন : অফিসে ব্যস্ততার কারণে দুপুরের খাবারের ক্ষেত্রে অনেকেই ঝোঁকেন অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি। এতে ওজন যেমন খুব দ্রুত বাড়ে,...

গরম ভাতের পাতে রসুন দিয়ে বেগুন

ডেস্ক প্রতিবেদন : বাংলার রসুইঘরে অতিপরিচিত ও সুস্বাদু সবজি বেগুন। তবে মাত্র কয়েকটা উপকরণে এই বেগুনের স্বাদ হয়ে উঠতে পারে অতুলনীয়।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is