ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-24

, ২৪ মহররম ১৪৪১

রাতে যেসব খাবার খাওয়া মানা

প্রকাশিত: ০২:১৩ , ৩০ নভেম্বর ২০১৮ আপডেট: ০২:১৪ , ৩০ নভেম্বর ২০১৮

ডেস্ক প্রতিবেদন: আমরা স্বভাবতই একটু ভোজনরসিক। অনেকে আবার সকাল বা দুপুরের খাবারের থেকে রাতের খাবারকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকে। রাতের খাবারের তালিকায় অনেকেই পছন্দ করেন ভারী খাবার রাখতে। আর খাবারের পর দুধ না খেলেতো অনেকের ঘুমই আসেনা। কিন্তু রাতে খাবারের তালিকায় যে পদগুলো রাখা হয় তা স্বাস্থ্যসম্মত কিনা সেবিষয়ে অনেকেই জানে না। রাতের ভারী খাবারগুলো যেমন ওজন বাড়ায় তেমনি নানা শারীরিক সমস্যারও কারণ এই খাদ্যাভ্যাস। 

তবে, কিছু খাবার এড়িয়ে চললে অনেক শারীরিক সমস্যার থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। 

আসুন জেনে নিন কোন খাবারগুলো আমাদের রাতের খাবারের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া উচিৎ : 

মিষ্টি
রাতে খাওয়ার পর মিষ্টি খাওয়ার অভ্যাস অনেকেরই আছে। কিন্তু এতে রক্তে শর্করার মাত্রা বেড়ে যায়। যা শরীরে শিথিলতা যেমন বাড়ায়, তেমনি ওজন বাড়িয়ে দেয়। 

দুধ
রাতে ঘুমানোর আগে গরম দুধ খাওয়া অনেকেরই পছন্দ। দুধ খাওয়া যেতে পারে, তবে তা ফ্যাট ফ্রি দুধ হওয়া উচিত। কারণ দুধের ল্যাকটোজ রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। 

ভাত
আমরা রাতে ভাত খাওয়া শরীরের জন্য আবশ্যক মনে করি। তবে, শরীর ভাল রাখতে রাতে ভাতকে বর্জন করাই শ্রেয়। 

পিজা
রাতে অনেক সময় আমরা ভাতের ক্ষুধা নিবারণে পিজাকে বেছে নিন। কিন্তু জেনে অবাক হবেন, পিজার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে খারাপ কার্বোহাইড্রেট ও স্যাচুরেটেড ফ্যাট থাকে যা হজম প্রক্রিয়াতে ব্যাঘাত ঘটনা। 

ফুড
শরীর সুস্থ রাখতে রাতের খাবারের তালিকা থেকে বেশি তেল ও মশলাযুক্ত খাবার বাদ দেওয়া  উচিৎ।

আলু ভাজা
বেশি রাত জাগলে সঙ্গী হিসেবে অনেকেই বেছেন নেন মুচমুচে আলু ভাজা। অথচ এটির স্যাচুরেটেড ফ্যাট ও সোডিয়াম শরীরের প্রচুর ক্ষতি করে।

ব্রকোলি
অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর খাবার এটি। তবে রাতের তা জন্য নয়। কারণ এটিতে বিদ্যমান ফাইবার হজম প্রক্রিয়াকে বিঘিœত করে যা ঘুমের ব্যাঘাত ঘটবে।

অরেঞ্জ জুস
অনেকে রাতে ঘুমানোর আগে অরেঞ্জ জুস খেয়ে থাকেন। কিন্তু জুস খেয়েই ঘুমিয়ে পড়লে অ্যাসিডিটি বেড়ে যায় যা ঘুমের বিঘœ ঘটায়।

চকলেট
চকলেট পছন্দ অনেকের পছন্দের তালিকা দেখলে দেখা যাবে তার মধ্যে চকলেট আছে। অধিকাংশের কাছেই বেশি পছন্দ ডার্ক চকলেটগুলো। কিন্তু দু:খজনক হলেও সত্যি ডার্ক চকলেটগুলোর মধ্যে প্রচুর পরিমাণ ক্যাফেন থাকে, যা øায়ুর উদ্দীপনা বাড়িয়ে দেয়। অথচ ঘুমের সময় প্রয়োজন øায়ুকে ঠান্ডা রাখা। 

আইসক্রিম
আইসক্রিমে বিদ্যমান সুগার রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়, যা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। তাই ঘুমানোর আগে আইসক্রিমের আসক্তি বর্জন করা উচিৎ। 

এই বিভাগের আরো খবর

যৌবন ধরে রাখতে যে খাবার খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: যৌবন এমন এক জিনিস যা সবাই ধরে রাখতে চান। প্রাকৃতিক নিয়মেই যদিও আমাদের বয়স বাড়ে, কিন্তু সত্যটা এই যে কেউই আসলে তা মন থেকে মেনে...

নারীদের শরীর ভালো রাখে যে ৪ খাবার

অনলাইন ডেস্ক: বর্তমান যুগে পুরুষের পাশাপাশি পিছিয়ে নেই নারীরা। ঘরে-বাইরে সমানতালে কাজ করে থাকেন তারা। তাই একজন নারী যদি সুস্থ না থাকেন তবে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is