ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

প্রতিদিনের সুস্থতায় মটরশুঁটি

প্রকাশিত: ০৫:৫২ , ০২ জানুয়ারী ২০১৯ আপডেট: ০৫:৫৩ , ০২ জানুয়ারী ২০১৯

ডেস্ক প্রতিবেদন: শীতের সবজি মটরশুঁটি চলে এসেছে বাজারে। সুস্বাদু মটরশুঁটি পুষ্টিগুণে ভরপুর। প্রতিদিন খাওয়ার তালিকায় রাখতে পারেন সেদ্ধ করা মটরশুঁটি। এছাড়া রান্না বা সালাদেও ব্যবহার করা যায় মটরশুঁটি। জেনে নিন সুস্থতার জন্য মটরশুঁটি খাওয়া জরুরি কেন।
 
প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি, বি৬ এবং ফলেট পাওয়া যায় মটরশুঁটি থেকে। এসব উপাদান রক্তের দূষিত উপাদান শরীর থেকে বের করে দেয়।

পাকস্থলীর ক্যানসার থেকে দূরে থাকতে মটরশুঁটি খেতে পারেন। গবেষণা মতে, এক কাপ মটরশুঁটিতে কম-বেশি ১০ মিলিগ্রাম পলিফেনল থাকে। যেখানে মাত্র ২ মিলিগ্রাম শরীরে প্রবেশ করলেই স্টমাকে ক্যানসার সেল জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা একেবারে শূন্যে এসে পৌঁছায়।

মটরশুঁটিতে থাকা ফাইবার, প্রোটিন এবং মাইক্রো-নিউট্রিয়েন্ট একদিকে যেমন পুষ্টির ঘাটতি দূর করে, তেমনি বারবার ক্ষুধা পাওয়ার সম্ভাবনাও কমায়। ফলে মাত্রাতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়ার প্রবণতা কমে। ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে তাই খেতে পারেন মটরশুঁটি।

লুটেইন, ক্যারোটেনিন, জিয়া-জেনন্থিনসহ আরও বেশ কিছু উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে মটরশুঁটিতে। এসব উপাদান দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায়।

মটরশুঁটিতে থাকা ডায়াটারি ফাইবার শরীরে প্রবেশ করার পর পাচক রসের ক্ষরণ বাড়িয়ে দেয়, ফলে হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে।

ফাইবার এবং প্রোটিন পাওয়া যায় মটরশুঁটি থেকে, জা শরীরে শকর্রার শোষণের মাত্রা কমিয়ে দেয়। ফলে হঠাৎ করে সুগার লেভেল বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা কমে।

কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যায় যারা ভুগছেন তারা প্রতিদিন খেতে পারেন মটরশুঁটি।

ত্বকের সুস্থতায় মটরশুঁটি খাওয়া চাই নিয়মিত।

 

এই বিভাগের আরো খবর

শ্বাসকষ্ট দূর করবে ব্যায়াম!

অনলাইন ডেস্ক: হাঁপানি বা শ্বাসকষ্ট যে কতটা কষ্টদায়ক রোগ, তা কেবল ভুক্তভোগীরা জানেন। এ রোগ নিরাময়ের জন্য হরেক রকম ওষুধ ও কৌশল আবিষ্কৃত...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is