ঢাকা, শনিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০১৯, ৬ মাঘ ১৪২৫

2019-01-20

, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০

মহেশপুরে বাড়ছে ইমিটেশন জুয়েলারির কারখানা

প্রকাশিত: ০৯:১০ , ১১ জানুয়ারী ২০১৯ আপডেট: ০৯:১০ , ১১ জানুয়ারী ২০১৯

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের মহেশপুরে বাড়ছে ইমিটেশন গোল্ড জুয়েলারির কারখানা। মাত্র দু’বছরের ব্যবধানে কারখানার সংখ্যা দুই থেকে বেড়ে দাড়িয়েছে ১১টিতে। এসব কারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করছে প্রায় আট শতাধিক পরিবার। পুরুষ ও নারীদের পাশাপাশি স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরাও করছে জুয়েলারি তৈরির কাজ।
উন্নত ডিজাইনের জন্য ঝিনাইদহের মহেশপুরের ইমিটেশন গোল্ড জুয়েলারির চাহিদা দেশ জুড়ে। নওগাঁ, জয়পুরহাট, লক্ষ্মীপুর, কুমিল্লা, সিলেট, রাজশাহী, ঢাকাসহ দেশের প্রায় ১৫ জেলায় যাচ্ছে এখানকার তৈরি গহনা। ছোট গহনার পাশাপাশি মানসম্পন্ন উন্নত ডিজাইনের বড় গহনাও তৈরি হচ্ছে এখানে। এসব কাজের জন্য তাদের কারিগরী ও আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন পিকেএসএফ ও আন্তর্জাতিক কৃষি উন্নয়ন তহবিল ইফাদ। আর তা এসব বাস্তবায়ন করছে যশোরের শিশু নিলয় ফাউন্ডেশন।
এসব কাজের শ্রমিকরা আগে যখন প্রতিদিন কাজ করে পেত ৫০ থেকে দেড়শ টাকা। তবে প্রশিক্ষণের পর তারাই এখন একশ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত পাচ্ছে বলে জানান শ্রমিকরা।
এদিকে, নারী-পুরুষের পাশাপাশি স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরাও এ পড়াশুনার ফাঁকে করছে এই কাজ।
ব্যবসায়ীরা জানায়, মানসম্পন্ন আর উন্নত ডিজাইনের জন্য আমুল পরিবর্তন এসেছে মহেশপুরের ইমিটেশন গোল্ড জুয়েলারির ব্যবসায়। আগের চেয়ে অনেক বেশী গহনা তৈরী হচ্ছে এখন।
দারিদ্র বিমোচনে এই প্রচেষ্টা একটি সম্ভাবনাময় সফল উদ্যোগ বলে মনে করেন শিশু নিলয় ফাউন্ডেশনের এ কর্মকর্তা।
সারাদেশের দরিদ্র মানুষের ভাগ্য বদলে দিতে এ ধরনের ক্ষুদ্র উদ্যোগ অবদান রাখবে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

পশু-পাখিদের রক্ষায় শিগগিরই শুরু হবে আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজ

সাভার প্রতিনিধি: দুর্যোগে মানুষের পাশাপাশি গৃহপালিত পশু-পাখিদের রক্ষার জন্য আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজ শিগগিরই শুরু হবে বলে জানিয়েছেন...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is