ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১২ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-24

, ১৮ শাবান ১৪৪০

ঢাকায় ব্যাপক গণজমায়েতের প্রস্তুতি আ’লীগের

প্রকাশিত: ০৯:১৭ , ১৮ জানুয়ারী ২০১৯ আপডেট: ০৯:১৭ , ১৮ জানুয়ারী ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ ‘বিজয় উৎসব’ উদযাপনে ঢাকার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আগামীকাল শনিবার- ১৯ জানুয়ারি মহাসমাবেশ করবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। এই কর্মসূচিতে ব্যাপক গণজমায়েতের প্রস্তুতি নিয়েছে দলটি। মহাসমাবেশে ঢাকা মহানগরের পাশাপাশি আশপাশের জেলা এমনকি সারাদেশ থেকেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।
গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিশাল জয় পেয়ে টানা তৃতীয়বার সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। আর দলের সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা নেতৃত্ব দিয়ে চতুর্থবারের মতো ক্ষমতায় বসান নৌকার দলকে। তিনি নিজেও প্রধানমন্ত্রীর আসনে অধিষ্ঠিত হন টানা তৃতীয়বারের মতো এবং সবমিলিয়ে চতুর্থবারের মতো।
এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ২৫৭টি এবং দলটির নেতৃত্বে মহাজোট ২৮৮টি আসনে জয় লাভ করে। এমন বিশাল বিজয় পেলেও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো উদযাপন করেনি আওয়ামী লীগ। নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পরই আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো বিজয়োল্লাস বা আনন্দ র‌্যালি না করার জন্য দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়। পরবর্তী সময়ে ঢাকায় মহাসমাবেশের মাধ্যমে বিজয় উৎসব করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সেই বিজয় উদযাপনের জন্য ১৯ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের যে মহাসমাবেশ হবে, এতে ঢাকা মহানগরসহ আশপাশের জেলা, এমনকি সারাদেশ থেকে দলের নেতা, কর্মী, সমর্থকরা যোগ দেবেন। দুপুর ২টায় মহাসমাবেশ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হবে। সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আগামী দিনে দল ও সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পরিকল্পনাগুলো তুলে ধরবেন সমাবেশে। দেবেন প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনাও। নেতারা জানান, মহাসমাবেশকে সফল করতে ঢাকায় ব্যাপক জনসমাগম ঘটাতে সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।। দলের কেন্দ্রীয় নেতারা গত এক সপ্তাহ দফায় দফায় বৈঠক করেছেন। আলাদা আলাদা সভা করেছেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ, ঢাকার পার্শ্ববর্তী ছয়টি জেলার নেতা এবং সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর নেতাদের সঙ্গেও। ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ মহানগরীর অন্তর্গত থানা, ওয়ার্ড ও ইউনিয়নগুলোতেও প্রস্তুতি সভা হয়েছে। সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোও অনুপরূপ বৈঠক করে মহাসমাবেশে বিপুল গণজমায়েতের প্রস্তুতি নিয়েছে।
আওয়ামী লীগের নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা জানান, মহাসমাবেশে বিপুল জনসমাগম ঘটনানোর মাধ্যমে জনস্রোত তৈরি করা হবে। দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও মহাসমাবেশকে কেন্দ্র করে ঢাকা মহানগরীকে জনসমুদ্রে পরিণত করার কথা বলেছেন।  তিনি বৃহস্পতিবার- ১৭ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মহাসমাবেশস্থল পরিদর্শনের সময় সাংবাদিকদের বলেন, আগামী শনিবার ১৯ জানুয়ারি জনসমুদ্র হবে। নির্বাচনে যেমন গণজোয়ার হয়েছিল আওয়ামী লীগের পক্ষে, ঠিক ১৯ জানুয়ারিও একটা বড় জোয়ার এই নগরী দেখতে পাবো।

এই বিভাগের আরো খবর

সংসদ সদস্যরা শপথ না নিলে জনগণের রায়ের অবমাননা হয়

চাঁদপুর প্রতিনিধি : নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ না নিলে জনগণের রায়ের প্রতি অবমাননা করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। যারা...

চেয়ারপারসনের মুক্তি নিয়ে দর কষাকষির খবর মিথ্যা- বিএনপি 

নিজস্ব প্রতিবেদক : দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে বিএনপি দর কষাকষি করছে, আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ করেছে...

সুপরিকল্পিতভাবে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করা হচ্ছে : মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : সুপরিকিল্পতভাবে ও চক্রান্তের মধ্য দিয়ে দেশে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল...

বিএনপি-জামাত অস্থিরতা সৃষ্টির চেষ্টা করতে পারে : ১৪ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক : যারা মুজিবনগর দিবস পালন করেনা এবং জয় বাংলায় বিশ্বাস করে না, তারা দেশের স্বাধীনতাকেই মানেনা বলে মন্তব্য করেছেন, ১৪ দলের...

২৯ এপ্রিলের মধ্যে শপথ না নিলে বিএনপির ৬ সংসদ সদস্যের আসন শূন্য হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বিএনপির নির্বাচিত ৬ সংসদ সদস্য ২৯ এপ্রিলের মধ্যে শপথ না নিলে তাদের আসন শূন্য হয়ে যাবে। ফলে বিষয়টি নিয়ে দলের মধ্যে ব্যাপক...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is