ঢাকা, রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-24

, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪০

শিশু মৃত্যু প্রতিরোধ এবং দারিদ্র্য দূরীকরণে বাংলাদেশের অগ্রগতি

প্রকাশিত: ০৯:৪৭ , ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ আপডেট: ০৯:৪৭ , ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : নবজাতক ও শিশু মৃত্যু প্রতিরোধ এবং দারিদ্র্য দূরীকরণে উলে­খযোগ্য অর্জনের মধ্য দিয়ে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এসডিজি অর্জনের পথে অনেকটাই এগিয়েছে বাংলাদেশ। তবে, চিকিৎসকের স্বল্পতা ও বেকারত্বের মতো বিষয়গুলো এখনো বড় বাঁধা হিসেবে রয়ে গেছে। পরিকল্পনা কমিশনের প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এসব তথ্য। সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এসময় পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান জানান, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করবে অর্জনের আশাবাদ ব্যক্ত করেন ।

জাতিসংঘের সকল সদস্য রাষ্ট্র ২০১৫ সালে এজেন্ডা টু থাউজেন্ড থার্টি নামে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-এসডিজি কর্মসূচী গ্রহণ করে। যেখানে ক্ষুধা ও দারিদ্র্য দূরীকরণ, সকলের জন্য সুপেয় পানি, কর্মসংস্থান, স্বাস্থ্য সেবা ও শিক্ষা নিশ্চিত করার মত ১৭টি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। গত তিন বছরে তার কতটুকু বাস্তবায়ন হয়েছে তা তুলে ধরতে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পরিকল্পনা কমিশন। এসময় অগ্রগতি প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন পরিকল্পনা কমিশনের জেষ্ঠ্য সচিব ডক্টর শামসুল আলম।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য সেবার লক্ষ্যমাত্রায় নবজাতক ও পাঁচ বছরের কমবয়সী শিশুর মৃত্যুরোধের সূচকে লক্ষ্যমাত্রা সময়ের আগেই পূরণ হয়েছে। কিন্তু দেশে চিকিৎসকের সংকট এখনও রয়ে গেছে। প্রতি দশহাজার জনের জন্য রয়েছেন মাত্র একজন চিকিৎসক। কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রেও রয়েছে সংকট। ১৫ থেকে ২৪ বছর বয়সীদের প্রায় ৩০ শতাংশই বেকার। তবে দারিদ্র দূরীকরণ ও মানব পাচার প্রতিরোধে রয়েছে উলে­খযোগ্য সাফল্য।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিস মিয়া সেপ্পা বলেন, এসডিজি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে মিশ্রভাব রয়েছে।

এসময় প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা মশিউর রহমান বলেন, বাংলাদেশ বিদেশী ঋণের ব্যবহারে দক্ষ হলে এসডিজি অর্জনে আরো ভাল করতে পারতো।

তবে ২০৩০ সালের আগেই বাংলাদেশ এসডিজি অর্জনে সক্ষম হবে বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

সঠিক তথ্যপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে ঘাটতি, এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে একটি বড় দুর্বলতা বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বিনিয়োগে আগ্রহী আবুধাবির দুই বড় বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে বিনিয়োগে বিশেষ আগ্রহ প্রকাশ করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দু’টি বড় কোম্পানি লুলু গ্রুপ ইন্টারন্যাশনাল এবং...

অনুমোদন পেল আরো তিন ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক : অনুমোদন পেল আরো তিনটি ব্যাংক। এগুলো হচ্ছে বেঙ্গল ব্যাংক, পিপলস ব্যাংক ও সিটিজেন ব্যাংক। রোববার রাতে কেন্দ্রীয়...

ঋণ খেলাপির সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসার আশ্বাস অর্থমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদক : দীর্ঘদিনের ঋণ খেলাপির সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসার আশ্বাস দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। সেই সাথে সব ব্যাংকের...

বাজারে মুদিপণ্যের দাম স্থিতিশীল

নিজস্ব প্রতিবেদক: এ সপ্তাহে বাজারে চাল ও সবধরনের মুদিপণ্যের দাম স্থিতিশীল থাকলেও সবজি এবং মাছের দাম বেড়েছে। বিশেষ করে নতুন করে বাজারে আসা...

আশুগঞ্জে চালের বাজার অস্থিতিশীল

ভৈরব প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া আশুগঞ্জের চালের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকার পরও বেড়েছে দাম। পাইকারী বাজারে কেজিতে ১ থেকে ২ টাকা বাড়লেও খুচরা...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is