সংগ্রামী ৭০ বছরে চারুকলা শিক্ষালয়ের অবদান অনন্য

প্রকাশিত: ০৯:৪২, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আপডেট: ০২:২৪, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশে চিত্রশিল্পী তৈরির সবচে পুরনো কারখানা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ। যদিও শিল্পী তৈরির কারখানা কথাটি নিয়ে দ্বিমত আছে এই সৃজনশীল জগতের কারও কারও। সেই বিতর্কের চেয়ে বড় হলো ১৯৪৮ সালে যাত্রা শুরু করা এই চারু-কারুকলা শিক্ষালয় অতি সম্প্রতি প্রতিষ্ঠার ৭০ বছর পূর্ণ করেছে। সমৃদ্ধ অসাম্প্র্রদায়িক সংস্কৃতির এই দেশে সত্তর বছরের পথচলায় ছিল আনন্দ, বেদনা আর নানা সংগ্রামের উপাখ্যান। আছে সাফল্য ও আক্ষেপের গল্পও।

বিদ্যা অর্জনের এই প্রাঙ্গণ অন্যান্য শিক্ষালয়ের চেয়ে আলাদা। এই বিদ্যার ভাষাও ভিন্ন। নিঃশব্দে প্রাণ-প্রকৃতির সব কিছইু প্রকাশ করে। এই ভাষা-বিদ্যায় শিক্ষিতদের নামও আলাদাÑ তাঁরা শিল্পী, চিত্রশিল্পী।

চিত্রশিল্পী তৈরির এই পীঠস্থানের আনুষ্ঠানিক নাম চারুকলা অনুষদ, দেশের প্রথম আনুষ্ঠানিক চারুশিক্ষার প্রতিষ্ঠান। প্রায় শতবর্ষী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন। গেল ২৫ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠার ৭০ বছর পূর্ণ করলো। শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিনের হাতে গড়া। নিজের সত্তরতম জন্মবার্ষিকীতে বৈচিত্রময় আয়োজনে সাধারণকে নিজের কাছে টানবার চেষ্টা করেছে।  

বাংলাদেশ তখন ছিল পাকিস্তানের অংশ। তবু এই জনপদের শৈল্পিক ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে ও সমৃদ্ধ করতে ১৯৪৮ সালে এই প্রতিষ্ঠান গড়ার উদ্যোগ নেন শিল্পাচার্য। তাঁর সঙ্গী ছিলেন শিল্পী আনোয়ারুল হক, শফিউদ্দিন আহমেদ, পটুয়া কামরুল হাসান, খাজা শফিক আহমেদ, শফিকুল আমিন ও মোহাম্মদ কিবরিয়া।

এর আগে এ অঞ্চলে এই শিক্ষার কেন্দ্র ছিল কলকাতায়। ঢাকা চারুকলার যাত্রা শুরুতে ছিলো ১৮ জন শিক্ষার্থী, কোন ছাত্রী ছিলো না। ঢাকার ন্যাশনাল মেডিকেল ইনস্টিটিউটের মাত্র দু’টি ঘরে যাত্রা শুরু, নাম ছিল ‘গভর্নমেন্ট ইনস্টিটিউট অব ফাইন আর্টস’। সমাজের অন্যান্য বিভাগের তৎকালীন কয়েকজন পন্ডিত ও গুণীজন চারুকলা প্রতিষ্ঠায় তাদের সহায়তার হাতও বাড়িয়েছিলেন।   

যাত্রা শুরুর সময়ের ছাত্রদের অনেকে প্রখ্যাত শিল্পী হয়েছেন। নিজের বিদ্যাপীঠের শিক্ষকও হয়েছেন। আজকের পর্যায়টি উৎসবের হলেও অনেক নেতিবাচক বাস্তবতা ও সংগ্রামের ভেতর দিয়ে এসেছে চারুকলার বর্ণাঢ্য বর্তমান।

 

এই বিভাগের আরো খবর

ক্লাবে ক্যাসিনো বসিয়ে লাভবান হাতে গোনা ক’জন

মাবুদ আজমী: ক্যাসিনোর কালিমা লাগার পর...

বিস্তারিত
দিলকুশা ক্লাব দখল করে ক্যাসিনো চালু করেন সাঈদ

মাবুদ আজমী: মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায় অবৈধ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *