ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫

2019-02-19

, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪০

পরিবহন খাত ঢেলে সাজানোর প্রক্রিয়া চলছে

প্রকাশিত: ১০:০৯ , ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ আপডেট: ১২:০৪ , ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: পরিবহন খাত নিয়ন্ত্রনে পুরো ব্যবস্থাপনাকে ঢেলে সাজাতে ফ্রাঞ্চাইজি ভিত্তিক যাত্রী পরিবহন নামানোর কাজ চলছে। যানজট কমাতে ফ্লাইওভার, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে করার পরিকল্পনা আছে। আগমী ৩ বছরের মধ্যে নগরবাসী এসব সুফলের আওতায় আসবেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে, সুফল পেতে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে হবে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্বব্যাংকের এক প্রতিবেদন বলছে, যানজটে প্রতিদিন ৩২ লাখ কর্মঘন্টা নষ্ট হচ্ছে ঢাকাবাসীর। সেই হিসেবে বছরে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১১ দশমিক চার বিলিয়ন ডলার।

জনসংখ্যার ঘনত্ব, যাত্রীদের যানবাহন ব্যবহারের তথ্য বিশ্লেষণ ও যানজটর বাস্তবতা বিবেচনায় নিয়ে ফ্রাঞ্চাইজি পদ্ধতিতে বাস পরিচালনার পরামর্শ আসে বিশেষজ্ঞদের কাছে থেকে। তারই ধারাবাহিকতায় উত্তর সিটি’র প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক সব বাস ছয়’টি কোম্পানির অধীনে আনার উদ্যোগ নেন। যেখানে ২২টি রুটে প্রায় আটহাজার বাস-মিনিবাস ও জোড়া লাগানো বাসের বহরের পরিকল্পনা করা হয় বলে জানান, ঢাকা পরিবহন সম্বনয় কর্তৃপক্ষের সাবেক নির্বাহী পরিচালক ড. সালেহউদ্দিন আহমেদ।

আনিসুল হকের মৃত্যুতে এ প্রকল্প ধীর হয়। যদিও তা বাস্তবায়নের দায়িত্ব এখন দক্ষিনের মেয়র সাঈদ খোকনের।

চলছে মেট্রোরেল প্রবর্তনের কাজ। প্রাথমিকভাবে তেজগাঁও থেকে উত্তরা আব্দুল্লাহপুর পর্যন্ত ১১টি ইউলুপ তৈরির কাজও শুরু হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনার পাশাপাশি স্বল্প সময়ে সুবিধে পাওয়া যায় এমন পরিকল্পনাও জরুরী।

সকল আয়াজনের সফল পরিচালনা জরুরি। তাই দক্ষ জনবল তৈরি করা দরকার, বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর

কিছুতেই শৃঙ্খলা ফিরছে না সড়কে

নিজস্ব প্রতিবেদক: শৃংখলা শব্দটি যেন একদম বেমানান দেশের পরিবহন খাতে। সড়কে নিয়মনীতি মানার ও প্রতিষ্ঠার কোন চেষ্টাই নেই কারও। পরিবহন মালিক,...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is