ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-18

, ১৬ জিলহজ্জ ১৪৪০

ভেনেজুয়েলার সেনাবাহিনীকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত: ১১:১০ , ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ আপডেট: ১১:১০ , ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভেনেজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর ওপর চাপে বাড়াতে দেশটির সামরিক বাহিনীকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইতোমধ্যেই ভেনেজুয়েলার সেনাবাহিনীকে মাদুরোর পক্ষ ত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্রের ত্রাণ না ঢোকার জন্য সেতু বন্ধ করে রেখেছে সেনাবাহিনী। সরকারবিরোধী উত্তাল পরিস্থিতিতে ভেনেজুয়েলায় ত্রাণ পাঠানোর চেষ্টা করছে যুক্তরাষ্ট্র। ইতোমধ্যে ত্রাণবাহী যান পৌঁছেছে কলম্বিয়া-ভেনেজুয়েলা সীমান্তে। ভেনেজুয়েলায় প্রবেশমুখী তিয়েনদিতাস সেতু কার্গো দিয়ে বন্ধ করে রেখেছে সেনাবাহিনী। যুক্তরাষ্ট্রের ত্রাণ মাদুরো প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে সেনাবাহিনী এ যান ভেনেজুয়েলায় ঢুকতে দিচ্ছে না।

হোয়াইট হাউস কর্মকর্তা বলছেন, গুয়াইদো কয়েকজন সেনা কর্মকর্তার সমর্থন পেয়েছেন। তবে নেতৃত্ব এখনও মাদুরোর পক্ষে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাশা- ভেনেজুয়েলা সেনাবাহিনীর সদস্যরা একে একে মাদুরোর পক্ষ ত্যাগ করবেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এ কর্মকর্তা বলেন, খুব সীমিত সংখ্যক সেনা সদস্যের সঙ্গে আলোচনা চলছে যুক্তরাষ্ট্রের। তবে কি আলোচনা হচ্ছে, বা ফলাফল কী আসছে, এ সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানি তিনি।

হোয়াইট হাউসের শীর্ষ আরেক কর্মকর্তা জানান, মাদুরোর ওপর চাপ সৃষ্টি করতে দেশের সামরিক বাহিনীকে এবার দূরে সরানোর চেষ্টা করছে যুক্তরাষ্ট্র। এতে করে মাদুরো বিরোধী আন্দোলন আরও বেগ পাবে। তবে এখনও মাত্র কয়েকজন সামরিক সদস্যের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে দেশটির।

রাজনৈতিকভাবেও মাদুরো সরকার চূড়ান্ত চাপে তো রয়েছেই।  ভেনেজুয়েলার জাতীয় পরিষদের প্রেসিডেন্ট গুয়াইদো মাদুরোর বিরুদ্ধে বিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ২৩ জানুয়ারি নিজেকে ‘অন্তবর্তী প্রেসিডেন্টও’ ঘোষণা দিয়ে দেন গুয়াইদো। তাকে স্বীকৃতিও দিয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানিসহ অন্তত ১২টি দেশ। অবশ্য রাশিয়া, চীনসহ কিছু দেশ এবং সেনাবাহিনী এখনও পর্যন্ত মাদুরোর পাশেই রয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর

ইসরায়েলকে মার্কিন অর্থ সহায়তা বন্ধের দাবি স্যান্ডার্সের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইসরায়েলকে দেওয়া মার্কিন অর্থ সহায়তা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। তিনি বলেছেন, দুই...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is