ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

2019-05-22

, ১৭ রমজান ১৪৪০

ঢামেকে পুলিশ পাহারা থেকে পালাল ডাকাত

প্রকাশিত: ০১:৪৫ , ০৬ মার্চ ২০১৯ আপডেট: ০১:৪৫ , ০৬ মার্চ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুলিশ পাহারায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) থেকে ডাকাতি মামলার এক আসামি পালিয়েছেন। তার নাম ইদ্রিস মাতবর (৪৫)। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের বাথরুমের জানালা দিয়ে পালিয়ে যান তিনি। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১০২ নম্বর ওয়ার্ডের ২৬ নম্বর বেডে ভর্তি ছিলেন তিনি।

সূত্র জানায়, মুন্সিগঞ্জের টুঙ্গিবাড়ি থানা এলাকার মুক্তিযোদ্ধা লাবু শিকদারের বাড়িতে গত ১ ফেব্রুয়ারি একদল ডাকাত হানা দেয়। এ সময় ওই মুক্তিযোদ্ধা তার লাইসেন্স করা অস্ত্র দিয়ে ডাকাতদের ওপর গুলি ছুড়েন। এতে ডাকাত ইদ্রিস মাতবরের শরীরে দুটি গুলি লাগে।

খবর পেয়ে টঙ্গিবাড়ি থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত ইদ্রিস মাতবরকে গ্রেফতার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এরপর থেকে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ইদ্রিস মাতবর। তার পাহারায় ছিলেন দুজন পুলিশ ও একজন আনসার সদস্য।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের বাথরুমে যান ইদ্রিস মাতবর। তিনি বাথরুমের ভাঙা জানালার ফাঁক দিয়ে পালিয়ে যান।

টঙ্গিবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মফিজুল ইসলাম জানান, আদালতের নির্দেশ ছিল, সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত ইদ্রিস মাতবর হাসপাতালে থাকবে। ঢামেকে তার পাহারার দায়িত্ব ছিল ডিএমপির পুলিশ। ইদ্রিস মাতবরের বাড়ি শরীয়তপুরের জাজিরা থানার চিতরারচর গ্রামে। তার বাবার নাম রহমান মাতবর।

এর আগে ২০১৭ সালের ২৩ আগস্ট ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে পালিয়ে যায় মাদক মামলার হাজতি সুজন মিয়া। পরে ওইদিন বিকালে তাকে গ্রামের বাড়ি ধামরাই থেকে গ্রেফতার করা হয়।

২০১৬ সালের ২৯ নভেম্বর দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এলাকা থেকে মো. সোহেল (৪২) নামে এক কয়েদি পালিয়ে যায়। পরে তাকে কেরানীগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করা হয়।

তাছাড়া ২০১৫ সালের ১০ অক্টোবর ঢামেক হাসপাতাল ১০২ নম্বর ওয়ার্ডের বারান্দা থেকে ওয়াদুদ খা ওরফে তাজুদ (৩৫) নামে খুনের মামলার এক আসামি পালিয়ে যায়। সে নেত্রকোনার আটপাড়া থানার একটি হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি ছিল।

২০১৫ সালের ১৮ মার্চ ঢামেক হাসপাতালের ৭০১ নম্বর ওয়ার্ড থেকে পালিয়ে যান শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বিমানবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত রেজাউল করিম (২৬) নামে চিকিৎসারত এক আসামি।

এ ছাড়া সাতক্ষীরায় রাজনৈতিক মামলায় গ্রেফতারকৃত আসামি মো. মুকুল (৩৮) ২০১৪ সালের ১২ মার্চ চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিট থেকে পালিয়ে যান।

এই বিভাগের আরো খবর

নিম্নমানের পণ্য রাখায় মিনাবাজারকে জরিমানা, এসিআইয়ের লবণ জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভ্যাট ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে বিদেশ থেকে আনা কসমেটিক্স বিক্রির অভিযোগে রাজধানীতে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে জাতীয়...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is