ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-23

, ২৩ মহররম ১৪৪১

২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাচনের ভোট গ্রহণ

প্রকাশিত: ০৮:১৯ , ১১ মার্চ ২০১৯ আপডেট: ০৯:০০ , ১১ মার্চ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে ২৮ বছর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ- ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে ভোট দিলেন শিক্ষার্থীরা। নির্ধারিত সময় শেষ হলেও, সবগুলি ভোট কেন্দ্রের সামনে এখনো ভোটারদের দীর্ঘ লাইন আছে। এদিকে, অনিয়মের অভিযোগে রোকেয়া হল, কুয়েত মৈত্রী হলসহ কয়েকটি হলে বিক্ষোভের মধ্যেই ভোট নেয়া হয়। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনায় দেরি শুরু হওয়ায় কয়েকটি হলের ভোটের সময় বাড়ানো হয়েছে। অনিয়মের অভিযোগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে কয়েকটি প্যানেল। মৈত্রী হলের প্রভোস্টকে অব্যাহতি ও তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। 

প্রায় তিন দশক পর ডাকসু ও হল সংসদ নির্বাচনে সোমবার সকাল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছিল উৎসবমুখর পরিবেশ। সকাল ৮টার বেশ আগেই ১৮টি হলে ভোট কেন্দ্রের সামনে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের দীর্ঘ লাইন। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ- ডাকসু’র ২৫টি পদের মধ্যে ২৩টিতে ভোট দেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়া প্রতিটি হল সংসদে ১৩টি পদে ভোট দিতে হয় তাদের।দেশের দ্বিতীয় সংসদ খ্যাত ডাকসু নির্বাচনে এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ৭’শ ৩৮ জন প্রার্থী। 

পরিচয়পত্র হাতে নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিতে আসেন শিক্ষার্থীরা। খালি ব্যালট বাক্স ও সিলগালা করা ব্যালট পেপার সব প্রার্থীদের দেখিয়ে সকাল ৮টায় শুরু হয় ভোট গ্রহন। 

নির্ধারিত সময়ে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও, রোকেয়া ও কুয়েত মৈত্রী হলে ব্যালট বাক্স দেখানোর দাবি জানাতে থাকেন প্রার্থীরা। এতে এই দুই হলে ভোট সময়মত শুরু হতে পারেনি। প্রায় সেয়া একঘন্টা পর রোকেয়া হলে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

কুয়েত মৈত্রী হলের প্রভোস্ট ব্যালট বাক্স ও ব্যালট পেপার প্রার্থীদের উপস্থিতিতে দেখাতে রাজি না হওয়ায় শুরু হয় প্রার্থীদের বিক্ষোভ। এক পর্যায়ে সাধারন শিক্ষার্থীরাও ভোটকেন্দ্রের সামনে বিক্ষোভ করেন। পরে কেন্দ্রের পাশের রিডিংরুম থেকে পাওয়া যায় আগে থেকেই ভোট দেয়া ব্যালটভর্তি কয়েকটি ব্যাগ। শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদের মুখে সেখানে হাজির হন উপ উপাচার্যম প্রক্টরসহ শিক্ষকরা। তারা তাৎক্ষণিকভাবে মৈত্রী হলের প্রভোস্ট শবনম জাহানকে অব্যাহতি দিয়ে অধ্যাপক মাহবুবা নাসরীনকে দায়িত্ব দেয়া হয়। পুরো ঘটনা তদন্তে গঠন করা হয় চার সদস্যের কমিটি। 

এরপর ১১টা ১০ মিনিট থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। উপ উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মাদ সামাদ জানান, মৈত্রী হলে সোয়া ৫টা পর্যন্ত ভোট নেয়া হবে। 

এদিকে, রোকেয়া হলে ব্যালট বাক্স ও ব্যালট পেপার দেখানো নিয়ে বিতর্কের এক পর্যায়ে হামলার শিকার হন ডাকসুতে কোট আন্দোলনের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক। ছাত্রলীগের ভিপি প্রার্থীর সামনেই এই ঘটনা ঘটে।

মহসীন হলে ভোট দেন ডাকসুর ছাত্রলীগ ভিপি প্রার্থী। তাদের দাবী নির্বাচন সুষ্ঠ হচ্ছে। তবে ছাত্রদলের ভিপি প্রার্থী অনিয়মের অভিযোগ করেন। 

এদিকে ভেঅটগ্রহণ শেষ হওয়ার ঘন্টাখানিক আগে বেলা সোয়া একটায় মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন প্রগতিশীল ছাত্র জোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী।

এই বিভাগের আরো খবর

ঢাবিতে বিতর্কিত ভর্তি বাতিলের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৪জন শিক্ষার্থীর বিতর্কিত ভর্তি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন  বিএনপি সমর্থিত সাদা দলের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is