ভর্তি পরীক্ষা শিশুদের জন্য মানসিক অত্যাচার- প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১১:৫৯, ১৩ মার্চ ২০১৯

আপডেট: ০৯:২৪, ১৩ মার্চ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশুদের ভর্তি পরীক্ষা একটি মানসিক অত্যাচার, তা বন্ধ করতে হবে। জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বে একটি মর্যাদাপূর্ণ আসন নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে আজকের শিশুরাই আগামী দিনের নেতৃত্ব দেবে। তাই তাদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠার আহ্বান জানান তিনি। দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে শিক্ষাকে বড় হাতিয়ার হিসেবে গুরুত্ব দিয়ে সরকার কাজ করছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।

জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহ উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ। তারা এমন একটি সমাজে বাস করবে যা হবে নিরাপদ। শেখ হাসিনা বলেন ৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার পর শিক্ষা নীতিমালা ২১ বছর আর আলোর মুখ দেখেনি। কোমলমতি শিশুদের ওপর চাপ প্রয়োগ না করতে এসময় শিক্ষক এবং অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিশুদের ভর্তি পরীক্ষা একটি মানসিক অত্যাচার তা বন্ধ করতে হবে।

খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক চর্চার মাধ্যমে শিশুদের মানসিক বিকাশে সরকার সুযোগ সৃষ্টি করছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আজকের শিশুরা আগামী দিনে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দেবে। 

অনুষ্ঠানে প্রাথমিক শিক্ষা বিস্তারে অনন্য ভূমিকা রাখায় সারাদেশের ১৯ জন শিক্ষক, কর্মকর্তাকে শিক্ষা পদক তুলে দেন তিনি। আন্তঃপ্রাথমিক বিদ্যালয় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় আবৃত্তি, চিত্রাংকন, পল্লীগীতি, লোকগীতি, দেশাত্মবোধক গান, একক অভিনয়, উপস্থিত বক্তৃতাসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী সারাদেশের ৯০জন শিক্ষার্থীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই বিভাগের আরো খবর

লকডাউন শিথিলে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে: ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুরোপুরি লকডাউনের...

বিস্তারিত
আরও কঠিন সময় আসছে: কাদের

নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনা মহামারী এবং...

বিস্তারিত
স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদ উদযাপনের আহ্বান কাদেরের

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে...

বিস্তারিত
ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের সতর্ক করলেন কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদ উপলক্ষ্যে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *