ঢাকা, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-20

, ১৪ শাবান ১৪৪০

এক চামচ ঘি

প্রকাশিত: ১১:৪৫ , ১৫ এপ্রিল ২০১৯ আপডেট: ১১:৪৫ , ১৫ এপ্রিল ২০১৯

ডেস্ক প্রতিবেদন: খালি পেটে ঘি খেতে পারলে শরীরে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের মাত্রা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। এই ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টেরলকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সাহায্য করে।

অনেকেই মন করেন, ঘি খেলে ওজন কমান তো যাবেই না, বরং তা বাড়বে। বিশুদ্ধ দেশি ঘিতে রয়েছে ৬৫ শতাংশ স্যাচুরেটেড ফ্যাট ও ৩২ শতাংশ মুফা। মুফা কোলেস্টরল কমাতে সাহায্য করে। ফলে যতই সানফ্লাওয়ার বা কটনসিড অয়েলের বিজ্ঞাপনে দাবি করুক না কেন, দেশি ঘি কিন্তু এদের থেকে বহু গুণ স্বাস্থ্যকর।

একাধিক গবেষণায় এটা প্রমাণিত যে, নির্দিষ্ট পরিমাণ ঘি, সঠিক পদ্ধতি মেনে নিয়মিত খেতে পারলে ওজন বাড়বে না বরং কমবে। এ ছাড়াও ঘি এর একাধিক উপকারিতাও রয়েছে। মস্তিষ্কের সচলতা বজায় রাখতে প্রয়োজন উপকারী ফ্যাটের।

ঘিয়ে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ অ্যাসেনশিয়াল ফ্যাট যা মস্তিষ্কের কোষের কর্মমতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতেও ঘি বিশেষ কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। খালি পেটে ঘি খেতে পারলে শরীরে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের মাত্রা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে।

এই ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টেরলকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সাহায্য করে। ফলে হার্টের সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়।

একই সঙ্গে পরিপাকতন্ত্রকে চর্বিমুক্ত করার পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাও নির্মূল করতে সাহায্য করে ঘি। এ ছাড়াও অ্যালার্জি প্রতিরোধে, সর্দি-কাশির কষ্ট কমাতে ঘি অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান।

 

এই বিভাগের আরো খবর

ডালিম খাবেন না যে চার লোক!

অনলাইন ডেস্ক: বেদানা বা ডালিমকে স্বর্গীয় ফল বলা হয়। কারণ এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের জাদুকরী গুনাগুন। ডালিম বা বেদানা ফল...

টনসিলের ব্যথা!

ডেস্ক প্রতিবেদন: অনেক সময় গলার ভিতরে এতটাই ব্যথা করে যে ঢোক গিলতে গেলেও খুব কষ্ট হয়! গলায় এই ধরনের ব্যথা সাধারণত টনসিলে সংক্রমণের জন্য হয়ে...

উচ্চ রক্তচাপ কমায় ডাবের পানি!

অনলাইন ডেস্ক: পানীয় হিসেবে ডাবের পানি অত্যন্ত জনপ্রিয়। বিশেষ করে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপসমূহ এবং ক্যারিবীয়...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is