ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯, ৭ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-21

, ১৯ জিলহজ্জ ১৪৪০

পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর মূল কারণ অসতর্কতা

প্রকাশিত: ০৮:৫৭ , ০৫ মে ২০১৯ আপডেট: ০২:৩৮ , ০৫ মে ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: সামান্য অসতর্কতাই পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর মত ভয়াবহ সংকটের মূল কারণ, পর্যবেক্ষণ বিশেষজ্ঞদের। এমনকি কেউ ডুবে গেলে করণীয় নিয়েও আছে অজ্ঞতা। সারা বছরই এমন বিপদ ঘটে, তবে বর্ষাকালে হয় অনেক বেশি। দক্ষিণাঞ্চলে এ সংকট প্রকট।  
প্রতিদিনই কোন না কোন জেলায় পানিতে ডুবে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। যেখানে শিশুর সংখ্যাই বেশি। খেলতে গিয়ে, কিংবা গড়িয়ে পড়ে অথবা নদীতে সাঁতার কাটতে গিয়ে তাদের মৃত্যু হয়। এমন মৃত্যুর ঘটনা দুপুরের দিকে বেশি ঘটে। গ্রামে মায়েরা গৃহস্থালীর কাজে ব্যস্ত থাকে তখন, তাই শিশু সন্তানের দিকে খেয়াল রাখতে পারে না। 
এক গবেষণা প্রতিবেদন বলছে, বাড়ি থেকে মাত্র ২০ মিটার দূরের পুকুরে ডুবে মারা যায় শিশু। বাবা-মায়েরা খুব একটা খেয়াল রাখতে পারেন না। মুখ ও নাক পানিতে ডুবলেই মারা যাওয়ার আশংকা বেশি। দেড় বছর আগে কড়াইল বস্তির গাড়িচালক রাসেলের সন্তান সাব্বির এভাবেই পানিতে ডুবে যায়।
বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, গ্রামে এই ঘটনা ঘটলে সবাই “ভাগ্য” বলে মেনে নেয়। যৌক্তিক কারণ ভাবে না, তাই এমন মৃত্যুর প্রতিরোধ চিন্তা আসে না।  আবার দূর্ঘটনার জন্য শিশুর মা’কেই পরিবার ও সমাজে সবচেয়ে বেশি দোষ দেয়া হয়। 
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সমস্যাটা কত ভয়াবহ তা সমাজকর্মী, নীতিনির্ধারকসহ কারোরই বিশ্বাসযোগ্য মনে হয়নি।  সংকট অনুধাবনে দুর্বলতার কারণে প্রতিকারে জোর পদক্ষেপ নেই।

এই বিভাগের আরো খবর

কাপ্তাই হ্রদ সৃষ্টির পরই কৃষিবাণিজ্য সম্প্রসারিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাহাড়ী এলাকা বিচিত্র কৃষিপণ্য উৎপাদনের বিশাল ক্ষেত্র হলেও সেখানের ক্ষুদ্র জাতি গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে কৃষি বাণিজ্যের ধারণা...

উচ্চ ফলনের তাগিদ ছিল না, কৃষি উন্নয়নে হয়নি গবেষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ১৩ সহস্রাধিক বর্গ কিলোমিটারের পার্বত্য চট্টগ্রাম ১৮৬০ সাল পর্যন্ত পরিচিত ছিল কোরপস নামে। ১৩০ বছর আগে এখানকার লোকসংখ্যা...

চাহিদার তুলনায় অর্ধেক সবজি উৎপাদন

নিজস্ব প্রতিবেদক: এক দশকে উৎপাদন দ্বিগুণ হলেও চাহিদার তুলনায় অর্ধেক সবজি উৎপাদন হচ্ছে প্রতি বছর। দুর্বলতা ও সীমাবদ্ধতাগুলো দূর করে চাষের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is