ঢাকা, রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-24

, ২২ জিলহজ্জ ১৪৪০

সাতক্ষীরায় স্বাক্ষর জাল করে হাসপাতালের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

প্রকাশিত: ১১:২৯ , ০৮ মে ২০১৯ আপডেট: ১১:২৯ , ০৮ মে ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বাক্ষর জাল করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের যন্ত্রপাতি কেনার ১৩ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঢাকার একটি প্রতিষ্ঠান এসব যন্ত্রপাতি সরবরাহ করার কথা ছিল। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি দল হাসপাতাল পরিদর্শনে গেলে বেরিয়ে আসে অভিনব এই লুটপাটের চিত্র। এদিকে, দোষীদের বিচার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে সচেতন নাগরিকরা। 

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ১০০ শয্যায় উন্নীত করার পর সরকার গত অর্থ বছরে যন্ত্রপাতি কেনার জন্য ১৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়। এরপর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গত জুলাইয়ে যন্ত্রপাতি সরবরাহের জন্য ঢাকার মার্কেন্টাইল ট্রেড কোম্পানির সাথে চুক্তি করে। চুক্তির পর প্রতিষ্ঠানটি সব টাকা তুলে নিলেও কোন যন্ত্রই সরবরাহ করেনি। 

স¤প্রতি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ৩ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে নতুন কেনা যন্ত্রপাতি দেখতে চাইলে তা দেখাতে ব্যর্থ হয় কর্তৃপক্ষ। চিকিৎসকরা অভিযোগ করেছেন, যন্ত্রপাতি সরবরাহ না করে সার্ভে কমিটির স্বাক্ষর জাল করে টাকা আত্মসাৎ করা হয়েছে।

তদন্তে জানা যায়, সাবেক সিভিল সার্জন তৌহিদুর রহমান যন্ত্রপাতি আসার আগেই শতভাগ বিল পরিশোধ করে দেন। সার্ভে কমিটির স্বাক্ষর জালের বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানালেন সিভিল সার্জন রফিকুল ইসলাম।

এদিকে, হাসপাতালে অনিয়ম ও টাকা আত্মসাতের সাথে জড়িতদের বিচার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ। 

এদিকে, হাসপাতালটির এক্স-রে, আলট্রাসনো ও ইসিজি মেশিন দীর্ঘদিন ধরে অকেজো অবস্থায় পড়ে আছে। এছাড়া বরাদ্দকৃত সরকারি ওষুধও কালোবাজারে চলে যায় বলে অভিযোগ করেন আন্দোলনকারীরা। 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is