ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-20

, ২০ মহররম ১৪৪১

পদ্মাসেতুর রেললাইন প্রকল্পে অপতৎপরতা

প্রকাশিত: ১০:০৩ , ২৭ মে ২০১৯ আপডেট: ১১:২৯ , ২৭ মে ২০১৯

ডেস্ক প্রতিবেদন : শরীয়তপুরের জাজিরা ও মাদারীপুরের শিবচর অংশে পদ্মাসেতুর রেললাইন প্রকল্প সম্প্রসারণের খবরে আবারো অপতৎপরতা শুরু করেছে একটি চক্র। ক্ষতিপূরণ বাবদ সরকারের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতে এসব এলাকার ফাঁকা জমিতে রাতারাতি ঘরবাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা তুলছে তারা।

পদ্মাসেতুর রেললাইনের জন্য প্রথম পর্যায়ে ফরিদপুরের ভাঙ্গা পর্যন্ত ৮২ কিলোমিটার এলাকায় মোট ৩৫৮.৪১ হেক্টর জমি অধিগ্রহণ করা হয়। এ পর্যায়ে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের অর্থ প্রদানও শেষ পর্যায়ে। এদিকে, দু’মাস আগে শরীয়তপুরের জাজিরা ও মাদারীপুরের শিবচর অংশে রেললাইন প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আরো কিছু জমি অধিগ্রহণের জন্য চিহ্নিত করা হয়। 

এরপরই শুরু হয়েছে অসাধু চক্রের অপতৎপরতা। ক্ষতিপূরণ হিসেবে বাড়তি টাকা হাতিয়ে নিতে, চিহ্নিত করা অতিরিক্ত অংশের ফাঁকা জমিতে রাতারাতি ঘরবাড়ীসহ বিভিন্ন স্থাপনা নির্মাণ শুরু করেছে তারা। লাগানো হয়েছে গাছপালাও। স্থানীয়দের অভিযোগ, জমি অধিগ্রহণের খবর আগাম জানতে পেরে ঘরবাড়ী বানাতে উঠেপড়ে লেগেছে অসাধু এই চক্রটি। নতুন বানানো অনেক ঘরে রাখা হয়েছে নদী ভাঙন কবলিত কিছু পরিবারকে।

তবে এই প্রকল্পের জন্য কতটুকু জায়গা নতুন করে অধিগ্রহণ করা হবে তা এখনও ঠিক করতে পারেনি প্রশাসন। তারা জানিয়েছেন, জায়গা চূড়ান্ত করার পর প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। জেলা প্রশাসক ওয়াহিদুল ইসলাম আরো জানান, শিগগিরি এসব এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান চালাবে  প্রশাসন।
 

এই বিভাগের আরো খবর

ডা. আকাশের স্ত্রী মিতুর জামিন বহাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করা চিকিৎসক মোস্তফা মোরশেদ আকাশের স্ত্রী তানজিলা হক চৌধুরী মিতুর জামিন বহাল রেখেছেন...

রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা তীরের ৩৪টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে শীতলক্ষ্যা নদীর তীরে দ্বিতীয় দিনের মতো অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is