ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-20

, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪০

অর্থমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বাজেট মুস্তফা কামালের

প্রকাশিত: ০৩:২৩ , ১৩ জুন ২০১৯ আপডেট: ০৬:৪৭ , ১৩ জুন ২০১৯


নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রথমবারের মতো অর্থমন্ত্রী হয়ে একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম বাজেট পেশ করলেন আ হ ম মুস্তফা কামাল। দেশের ইতিহাসে ১২তম দায়িত্বশীল ব্যক্তি হিসেবে ২০১৯-২০ অর্থবছরের ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার বাজেট উপস্থাপন করলেন তিনি। তবে অসুস্থ্যতার কারণে একপর্যায়ে মুস্তফা কামালের অনুরোধে বাজেটের বাকি অংশ পড়ে শোনান প্রধানমন্ত্রী ও সংসদ নেতা শেখ হাসিনা।

বর্তমান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এর আগে ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী। অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব নিয়ে এবারই প্রথম বাজেট পেশ করলেন তিনি।

আ হ ম মুস্তফা কামাল ৬ জানুয়ারি অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নেয়ার পাঁচ মাসের কিছু বেশিদিনের মাথায় দিচ্ছেন এ বাজেট। এর আগে পরিকল্পনামন্ত্রী হিসেবে আওয়ামী লীগ সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে দেশের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) প্রণয়নের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। পেশায় চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট মুস্তফা কামাল ২০১৮ সালে চতুর্থ মেয়াদে বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের সদস্য হিসেবে কুমিল্লা-১০ সংসদীয় আসন থেকে নির্বাচিত হন।

নিজের প্রথম বাজেটকে ‘স্মার্ট বাজেট’ দাবি করে মুস্তফা কামাল বলেন, এবারের বাজেটের আকার বাড়লেও বাজেট বক্তৃতার বই হবে সংক্ষিপ্ত। বাজেটের লক্ষ্য সুদূরপ্রসারী হলেও তা অর্জন করতে চেষ্টা থাকবে সাধ্যের মধ্যে, যা সর্বস্তরের জনসাধারণের জন্য হবে সহজপাঠ্য। দেড়শ-দুশ পাতার বাজেট বক্তৃতার বই নয়, এবার বাজেট বক্তৃতার বই সর্বোচ্চ ১০০ পাতার মধ্যেই সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে। আর এর মধ্যেই থাকছে দেশের ১৬ কোটি মানুষের স্বপ্নপূরণের অঙ্গীকার। আমরা কাজে বিশ্বাসী।’

তিনি আরও বলেন, ‘বাজেট প্রণয়ন কোনো বড় কথা নয়, বাজেট বাস্তবায়নই বড় কাজ। এটিই আমার বড় চ্যালেঞ্জ। শুধু এক বছরের জন্য নয়, সূদুরপ্রসারী লক্ষ্য নিয়ে বিশেষ করে ২০৪১ সালকে টার্গেট করে তৈরি হবে এবারের বাজেট। সাধারণ মানুষের জন্যই তৈরি হচ্ছে এ বছরের বাজেট।’

১৯৭২ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রীরা বাজেট পেশ করেছেন। তবে অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ছাড়াও কখনো কখনো দেশের প্রধানমন্ত্রী, উপদেষ্টা, প্রধান সামরিক আইন প্রশাসক, আবার রাষ্ট্রপতি নিজেও বাজেট ঘোষণা করেছেন। সেই হিসাবে এবারের ৪৮তম বাজেটসহ বাংলাদেশের ইতিহাসে বাজেট পেশকারী হলেন ১২ জন।

এর আগে বাজেট পেশকারী দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা হলেন তাজউদ্দীন আহমদ, আজিজুর রহমান মল্লিক (এ আর মল্লিক), মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমান, এম এন হুদা, এম সাইফুর রহমান, আবুল মাল আবদুল মুহিত, এম সায়েদুজ্জামান, মেজর জেনারেল এম এ মুনিম, ওয়াহিদুল হক, শাহ এ এম এস কিবরিয়া ও এ বি মির্জ্জা মো. আজিজুল ইসলাম। গত ১০ বছর টানা বাজেট দিয়েছেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭২-৭৩ অর্থবছর প্রথম বাজেট ঘোষণা করা হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বাধীন সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে তাজউদ্দীন আহমদ স্বাধীন বাংলাদেশের সেই প্রথম বাজেট পেশ করেন। প্রথম বাজেটসহ তিনি মোট তিনবার (১৯৭২-৭৩, ১৯৭৩-৭৪ ও ১৯৭৪-৭৫) বাজেট পেশ করেন।

১৯৭৫-৭৬ অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী আজিজুর রহমান মল্লিক।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান টানা তিনবার (১৯৭৬-৭৭, ১৯৭৭-৭৮ ও ১৯৭৮-৭৯) বাজেট পেশ করেন।

১৯৭৯-৮০ অর্থবছরে তৎকালীন অর্থমন্ত্রী এম এন হুদা বাজেট পেশ করেন।

অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে থেকে এম সাইফুর রহমান ১৯৮০-৮১ ও ১৯৮১-৮২ অর্থবছরে দুবার এবং ১৯৯১-৯২, ১৯৯২-৯৩, ১৯৯৩-৯৪, ১৯৯৪-৯৫, ১৯৯৫-৯৬ অর্থবছরে পাঁচবার এবং ২০০২-০৩, ২০০৩-০৪, ২০০৪-০৫, ২০০৫-০৬, ২০০৬-০৭ পর্যন্ত আরও পাঁচবারসহ সর্বমোট ১২ বার বাজেট পেশ করেন।

সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ১৯৮২-৮৩ ও ১৯৮৩-৮৪ অর্থবছরে দুবার, ২০০৯-১০, ২০১০-১১, ২০১১-১২, ২০১২-১৩, ২০১৩-১৪, ২০১৪-১৫, ২০১৫-১৬, ২০১৬-১৭, ২০১৭-১৮, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ১০ বারসহ সর্বমোট ১২ বার বাজেট পেশ করেন।

১৯৮৪-৮৫, ১৯৮৫-৮৬, ১৯৮৬-৮৭ ও ১৯৮৭-৮৮ এই চার অর্থবছর বাজেট দেন অর্থমন্ত্রী এম সায়েদুজ্জামান।

১৯৮৮-১৯৮৯ অর্থমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পান মেজর জেনারেল এম এ মুনিম। তিনি দুবার (১৯৮৮-৮৯ ও ১৯৯০-৯১) বাজেট পেশ করেন।

১৯৮৯-৯০ অর্থবছর অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন ওয়াহিদুল হক। তিনি ওই অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন।

অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে থেকে শাহ এ এম এস কিবরিয়া ১৯৯৬-৯৭, ১৯৯৭-৯৮, ১৯৯৮-৯৯, ১৯৯৯-০০, ২০০০-০১ ও ২০০১-০২ অর্থবছরের মোট মোট ছয়বার বাজেট পেশ করেন।

এ ছাড়া ২০০৭-০৮ ও ২০০৮-০৯—এই দুই অর্থবছরে বাজেট পেশ করেন এ বি মির্জা মো. আজিজুল ইসলাম। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান কে হবেন, এ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে তীব্র আন্দোলনের একপর্যায়ে সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠিত হয়। সে সরকারের অর্থ উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন এ বি মির্জা মো. আজিজুল ইসলাম। তিনি ওই সময় পরপর ওই দুই বাজেট দেন।

 

এই বিভাগের আরো খবর

এমপি হিসেবে সালমা চৌধুরীর শপথ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে শপথ নিলেন আওয়ামী লীগের মনোনীত সালমা চৌধুরী। বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) স্পিকার ড. শিরীন...

সংসদ ভবনে এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় সংসদ ভবনের টানেলে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় নামাজে জানাজা...

নারী-শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে আইন আরো কঠোর হবে : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নারী ও শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণ প্রতিরোধে আইন আরো কঠোর করা হবে। রাতে সংসদের বাজেট...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is