ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-23

, ২৩ মহররম ১৪৪১

৫ লাখ ২৩ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ

প্রকাশিত: ০৪:৪৯ , ১৩ জুন ২০১৯ আপডেট: ০৭:৪৬ , ১৩ জুন ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯-২০ অর্থবছররে জন্য ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকার জাতীয় বাজেট পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।  বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকালে সমৃদ্ধি আগামীর প্রত্যাশা নিয়ে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য জাতীয় সংসদে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১শ ৯০ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী । যাতে আয় ও ব্যয়ের মধ্যে সামগ্রিক ঘাটতি রয়েছে ১ লাখ ৪৫ হাজার কোটি টাকা। তৈরি পোশাক রপ্তানি ও প্রবাস আয় দেশে পাঠাতে নগদ প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী। আওয়ামী লীগের টানা তৃতীয় মেয়াদের প্রথম বাজেটের নতুনত্ব হলো তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য তহবিল গঠন ও কৃষকদের আর্থিক ক্ষতি কাটাতে শষ্যবীমা প্রবর্তন।

গত বছরের তুলনায় প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকা বাড়িয়ে নতুন ২০১৯-২০ এর জন্য ৫ লাখ ২৩ হাজার ১শ ৯০ কোটি টাকার বাজেট পেশ করা হয়েছে। 
বাজেট বাস্তবায়নে অর্থের যোগান হিসেবে আয় ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার কোটি টাকা। যার মধ্যে রাজস্ব বোর্ডের মাধ্যমে আয় ৩ লাখ ২৫ হাজার কোটি টাকা, রাজস্ব বোর্ড বর্হিভূত ১৪ হাজার এবং কর বর্হিভূত আয় ধরা হয়েছে ৩৭ হাজার কোটি টাকা। 
বড় লক্ষ্যের কারণে ঘাটতিও বাড়ছে বাজেটে, সামগ্রিক ঘাটতি হবে ১ লাখ ৪৫ হাজার কোটি টাকা। এই ঘাটতির সংস্থান হবে দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং বিদেশি উৎস থেকে ঋণ নিয়ে। সরকার ব্যাংক ও সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণ নেবে ৭৭ হাজার ৩শ’ কোটি এবং বিদেশি সংস্থা থেকে ঋণ নেবে ৬৮ হাজার ১৬ কোটি টাকা।

এবারের বাজেটে সর্বাধিক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে। এরপর রয়েছে যোগাযোগ খাত। তারপর রয়েছে কৃষি ও পানি সম্পদ খাত।
বাজেটে নতুন চমক হিসেবে থাকছে তরুণ উদ্যোক্তার ব্যবসা শুরু করতে একশ’ কোটি টাকার তহবিল। এক কোটিরও বেশি প্রবাসীর আয় দেশে পাঠাতে ২ শতাংশ নগদ প্রনোদনা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী। এজন্য বাজেটে ৩ হাজার ৬০ কোটি টাকার বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।
ব্যাংকিং খাতের শৃংখলা আনতে কমিশন গঠনের কথা বলা হয়েছে। ব্যাংক কোম্পানি আইনের সংস্কার আনা হবে, প্রয়োজনে ব্যাংক একিভূত করা। পুঁজিবাজারে তালিকাভূক্ত কোম্পানির ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত লভ্যাংশ আয় করমুক্ত সুবিধা রাখা হয়েছে।

কর্পোরেট কর হার ও ব্যক্তি করমুক্ত আয়সীমা অপরিবতর্তিত থাকছে। দেশের সব মানুষের জন্য সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা চালু করতে একটি কর্তৃপক্ষ গঠনের প্রস্তাব করা হয়েছে। এনআইডির মাধ্যমে সঞ্চয়পত্রের ক্রয়ের ঋণসীমা নির্ধারণ করা হবে। দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আবারো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভূক্তির ঘোষণা দিয়েছে সরকার। এজন্য বরাদ্দও রাখা হয়েছে। তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ১ শতাংশ নগদ প্রনোদনা দেয়া ঘোষণা দেয়া হয়েছে।
এবারের বাজেটে পরিচালনসহ অন্যান্য খাতে মোট বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩ লাখ ২০ হাজার ৪৬৯ কোটি টাকা। বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা।

পর্যালোচনা ও যাচাই বাছাই শেষে আগামী ৩০ জুন প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে পাস হবে। আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের বাজেট।

এই বিভাগের আরো খবর

সরকারের ধারাবাহিকতা থাকায় অর্থনীতি স্বাবলম্বী হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকারের ধারাবাহিকতা থাকায় অর্থনীতি স্বাবলম্বী হয়েছে। এই অগ্রগতি ধরে রাখার আহবান...

মশার ওষুধ কেনায় অনিয়ম হলে ব্যবস্থা; সংসদে প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে ডেঙ্গু যাতে মহামারি আকারে ছড়িয়ে না পড়ে, সেই ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার। মশা মারার ওষুধ কেনায় অনিয়ম নিয়ে তদন্ত হচ্ছে,...

দৌলতদিয়ায় হবে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু: সংসদে সেতুমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শেষে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া পয়েন্টে দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে বলে সংসদে জানালেন...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is