ঢাকা ঘিরে নদীতীর স্থায়ীভাবে দখলমুক্ত করার উদ্যোগ

প্রকাশিত: ১০:১৪, ১৮ জুন ২০১৯

আপডেট: ১১:২৪, ১৮ জুন ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকার চারপাশের নদী-তীর দখলমুক্ত করার পর, তা স্থায়ীভাবে সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। নদীর দু’পারে ওয়াকওয়ে, উন্মুক্ত মঞ্চ, ইকোপার্ক ও শিশু কর্ণার নির্মাণ করা হবে। এজন্য একটি প্রকল্প তৈরি করেছে বিআইডাব্লিউটিএ। এটি বাস্তবায়িত হলে নদী দখল বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি নদীতীর বিনোদনের নতুন জায়গা হয়ে উঠবে বলে জানান প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা।

বিআইডাব্লিউটিএ’র সাম্প্রতিক অভিযানে বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ তীরের ১১০ কিলোমিটার এলাকার অবৈধ দখলমুক্ত হয়েছে। এতে উদ্ধার হয়েছে ১১৩ একর তীরভূমি। ভবিষ্যতে আর যাতে কেউ নদী দখল করতে না পারে সে জন্য উদ্ধার করা অংশে স্থায়ী কাঠামো করার পরিকল্পনা নেয়া নিয়েছে সরকার। 

ঢাকার চারপাশের নদ-নদী- বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু আর শীতলক্ষ্যা তীরের ২শ’ ২০  কিলোমিটার এলাকায় হবে ওয়াকওয়ে, তিনটি ইকোপার্ক। পরিবেশ সুরক্ষায় সবুজায়ন করা হবে এসব এলাকা। 

নদী পাড়ে স্থাপন করা হবে একশরও বেশি ঝুলন্ত সিড়ি। তৈরি করা হবে ৪শ ৯টি বসার স্থান, পণ্য ওঠা নামার জন্য করা হবে ১৯টি জেটি। 

ঢাকার ঐতিহ্য আহসান মঞ্জিলকে কেন্দ্র করে বুড়িগঙ্গার দু’পাড়ে তৈরি করা হবে দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা। বাবু বাজার থেকে সদরঘাট পর্যন্ত অত্যাধুনিক এলাকা হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনার কথাও জানান বিআইডাব্লিউিটিএ এর অর্থ সদস্য (যুগ্ম সচিব) নূরুল আলম। কয়েকটি ধাপে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে বলে জানান তিনি। পুরো পুরিকল্পনা বাস্তবায়নে লাগবে ২২শ কোটি টাকা। 
 

এই বিভাগের আরো খবর

বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩১ অক্টোবর

আজ বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৯, ১৬...

বিস্তারিত
বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩০ অক্টোবর

আজ বুধবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৯, ১৫ কার্তিক...

বিস্তারিত
নড়াইলে পান চাষে লাভবান কৃষকরা

নড়াইল প্রতিনিধি: অনুকূল আবহাওয়ায়...

বিস্তারিত
টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: দূষণের কারণে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *