ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-20

, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪০

১১টি কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম: হাইকোর্টে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২:৪২ , ১৬ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০৬:৪৬ , ১৬ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকারের মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসটিআই অনুমোদিত ১১টি কোম্পানির পাস্তুরিত দুধে মানবস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক সিসা ও ক্যাডমিয়াম পাওয়া গেছে বলে হাইকোর্টে রিপোর্ট দিয়েছে সরকারি সংস্থা নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার হাইকোর্টে এই রিপোর্ট দাখিল করে বিএসটিআই। তরল দুধের ৫০টি নমুনা, পাস্তুরিত দুধের ১১টি এবং গো খাদ্যের ১২ নমুনা সংগ্রহ করে ৪টি ল্যাবে পরীক্ষা করে এই রিপোর্ট দাখিল করে সংস্থাটি।
সম্প্রতি এক রিটের প্রেক্ষিতে বিএসটিআই ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে ঢাকাসহ সারা দেশের বাজারে কোন কোন কোম্পানির দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্যপণ্যে কী পরিমাণ ক্ষতিকারক পদার্থ রয়েছে, তা নিরূপণ করে একটি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে এই প্রতিবেদন দাখিল করে প্রতিষ্ঠান দু’টি। প্রতিবেদনে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ মিল্ক ভিটা, ডেইরী ফ্রেশ, ঈগলু, ফার্ম ফ্রেশ, আফতাব মিল্ক, আল্ট্রা মিল্ক, আড়ং, প্রাণ মিল্ক, আয়রণ, পিউরা ও সেফ ব্র্যান্ডের পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষা করে অতিরিক্ত মাত্রায় সিসার উপস্থিতি পেয়েছে।

বাজারে বিক্রি হওয়া খোলা দুধের নমুনাও ক্ষতিকারক সীসা পাওয়া গেছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ্য করা হয়েছে। এজন্য চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন ছাড়া গবাদিপশুর জন্য অ্যান্টিবায়োটিক বিক্রি বা বিতরণ না করতে বলেছে আদালত।

নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের রিপোর্ট অনুযায়ী, ক্ষতিকারক উপাদান থাকা কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নিয়েছেন তা জুলাইয়ের ২৮ তারিখের মধ্যে বিএসটিআই ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষকে জানাতে নির্দেশ দিয়েছেন উচ্চ আদালত।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is