ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-20

, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪০

ধসে পড়া ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত: ০৮:৪৬ , ১৭ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০৫:৫২ , ১৮ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুরান ঢাকার পাটুয়াটুলীতে ধসে পড়া একটি দোতলা ভবনের ধ্বংসস্তূপ থেকে দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রাতে মরদেহগুলো উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। নিহতরা হলেন জাহেদ আলী বেপারি ও তার ছেলে শফিকুল বেপারি। তাদের বাড়ি মাদারীপুরে। 

বুধবার দুপুরে, পাটুয়াটুলীর সুমনা হাসপাতালের পাশে ছয় নম্বর লেনে পুরোনো ওই ভবনটির একটি অংশ ধসে পড়ে। খবর পেয়ে সেখানে যায় ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট। তবে ওই ধ্বংসস্তূপের নিচে কেউ আটকা থাকতে পারে এমন সংবাদ পাওয়ার পর উদ্ধারকাজে যোগ দেয় ফায়ার সার্ভিসের ছয়টি ইউনিটের অন্তত অর্ধশতাধিক কর্মী।

ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভবনটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এর নিচতলায় ফলের গোডাউন এবং উপরের তলায় আবাসিক রুম। চুন-সুরকি দিয়ে ভবনটি নির্মাণ করা হয়।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘ধসেপড়া ভবনটি দীর্ঘদিনের পুরনো হওয়ায় উদ্ধার কাজে ঝুঁকি রয়েছে। ফায়ার সার্ভিস ভারী যন্ত্রপাতি নিয়ে সেখানে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে।’

স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. সোবহান বলেন, ‘তিনতলা এই ভবনটি ভোরের দিকে ধসে পড়েছে। দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিয়েছি। এরপর ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা উদ্ধার কাজ চালাচ্ছেন।’

এই ব্যবসায়ী আরও জানান, যে পাশের রুমটি ধসে পড়েছে, সেখানে সদরঘাটের ফল ব্যবসায়ী জাহেদ আলী ও তার ছেলে থাকতেন। তবে, তিনি ছেলের নাম জানাতে পারেননি।

ব্যবসায়ী মো. সোবহান বলেন, ‘গতকাল (মঙ্গলবার) রাতে ফলের দোকান বন্ধ করার পর সকাল থেকে দোকান বন্ধ ও মোবাইলও বন্ধ। ভবনটি এমনি ঝুঁকিপূর্ণ, তার মধ্যে কয়েকদিনের বৃষ্টিতে আরও খারাপ অবস্থা ছিল।’

ফায়ার সার্ভিস বলছে, ভবনের একটি রুমের ছাদ ধসে পড়েছে। উদ্ধারের সময় আরেকটি দেয়াল ধসে পড়ে। এছাড়া ভবনটির আশপাশে কোনও জায়গায় নেই, ভবনে যাওয়ার রাস্তাও খুব সরু। ফলে উদ্ধার চালাতে খুবই বেগ পেতে হচ্ছে। ভবনের নিচে কেউ আটকা পড়েছে কিনা, তার সন্ধানে কাজ চলছে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

রাঙ্গামাটিতে এক সেনাসদস্য নিহত

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি : রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের সাথে গুলি বিনিময়ে একজন সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে সেনাটহল জোরদার করা হয়েছে।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is