ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-20

, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪০

নারায়ণগঞ্জে একই পরিবারে ৬ জন প্রতিবন্ধী

প্রকাশিত: ১২:২১ , ১৮ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০৮:২৩ , ১৮ জুলাই ২০১৯

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের মাদ্রাসা শিক্ষক এবিএম হান্নানের পরিবারের ৬ সদস্য প্রতিবন্ধী। শারীরিক প্রতিবন্ধীদের নিয়ে এই পরিবারটি আছে বিপাকে। সন্তানদের উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করলেও প্রতিবন্ধী কোটায়ও কোন চাকরি পায়নি তারা। 

১৯৯৭ সালে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ভূঁইগড় পশ্চিমপাড়ায় প্রতিবন্ধী স্ত্রী, তিন ছেলে ও তিন মেয়ে নিয়ে বসবাস শুরু করেন মাদ্রাসা শিক্ষক এবিএম হান্নান। তার পরিবারের ৮ সদস্যের মধ্যে ৬ জনই শারীরিক প্রতিবন্ধী। তবুও দমে যাননি হান্নান। শারীরিক প্রতিবন্ধী বড় ছেলে রুবেল øাতকোত্তর পাস করেছেন, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী মেয়ে ফাতেমা তুজ জোহরাও শেষ করেছেন øাতক। শারীরিক প্রতিবন্ধী আরেক মেয়ে আয়শা সিদ্দিকা সম্মান শ্রেণিতে অধ্যায়নরত, প্রতিবন্ধী ছোট দুই ছেলে শাহজাদ মিয়া ও সাগর পড়ছে যথাক্রমে পঞ্চম ও তৃতীয় শ্রেণিতে। 

পরিবারের বড় ছেলে রুবেল খান জানান, সন্তানদের লেখাপড়ায় সরকারি কোন সহায়তা পায়নি। হান্নান ও তার বড় ছেলে রুবেলের ছাত্র পড়ানোর টাকায় চলে তাদের সংসার। øাতকোত্তর পাস করেও কোন চাকরি না পেয়ে ভেঙ্গে পড়েছেন রুবেল।

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও গৃহকর্তা এবিএমএ হান্নান ও তার স্ত্রী বলেন,  প্রতিবন্ধী সন্তানদের চাকরির জন্য সরকারি সহায়তা চান।

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির জানান, হান্নানের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর কথা। 

নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ জানান, প্রতিবন্ধী পরিবারের প্রতি সরকারের বিশেষ নজর রয়েছে। হান্নানের বড় সন্তানের চাকরীর ব্যবস্থা করা হবে।


 

এই বিভাগের আরো খবর

নওগাঁয় রেজিস্ট্রেশন বিহীন সিএনজিচালিত অটোরিকশায় সয়লাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: নওগাঁয় চলাচলকারী প্রায় দুই হাজার সিএনজিচালিত অটোরিকশার মধ্যে রেজিস্ট্রেশন নেই প্রায় এক হাজার সাতশটির। অটোরিকশা...

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় প্রাণ হারান মাদারীপুরের চারজন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০০৪ সালের ২১ আগস্টে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলায় সারাদেশ থেকে আসা অসংখ্য নেতাকর্মী হতাহত...

দ্বিতীয় দিনে মতামত নেয়া হচ্ছে তালিকাভূক্ত রোহিঙ্গাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রথম পর্যায়ের রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য তালিকাভূক্তদের দ্বিতীয় দিনের মতো মতামত নেয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার টেকনাফের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is