ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

2019-08-20

, ১৮ জিলহজ্জ ১৪৪০

ওয়াসার ১১টি খাতে অনিয়ম পেয়েছে দুদক

প্রকাশিত: ০৫:০০ , ১৮ জুলাই ২০১৯ আপডেট: ০৫:৩৬ , ১৮ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: ওয়াসার ১১টি খাতে অনিয়ম-দুর্নীতি পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১২টি সুপারিশসহ এক প্রতিবেদন স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর কাছে জমা দিয়েছে দুদক।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সচিবালয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলামের কাছে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান।

এ সময় ড. মোজাম্মেল হক খান গণমাধ্যমকে বলেন, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ শেষ না করে বিভিন্ন অজুহাতে প্রকল্প বাস্তবায়নে সময়সীমা ও প্রকল্প ব্যয় বাড়ানো হয়। এক্ষেত্রে প্রকল্প পরিচালকসহ প্রকল্প বাস্তবায়নের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী এবং ওয়াসার (পানি সরবরাহ ও পয়:নিষ্কাশন কর্তৃপক্ষ) ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ যুক্ত থাকেন।

তিনি আরো বলেন, ওয়াসার সরবরাহ করা পানি এখনো পানযোগ্য নয়। ওয়াসার ১১টি দুর্নীতি আমরা পেয়েছি। এজন্য ১২টি সুপারিশ করেছি।

বিভিন্ন প্রকল্পে অতিরিক্ত খরচ হয়েছে, প্রকল্পের খরচ বেড়ে গেছে উল্লেখ করে ড. মোজাম্মেল বলেন, কালক্ষেপণের কারণে এমন হয়েছে। এছাড়া ঠিকাদারদের তাদের কাজের চেয়ে বেশি টাকা দেওয়া হয়েছে। এতে কাজ তুলে নেওয়া যাচ্ছে না। তাই কাজের মান ও পরিসর বিবেচনা করে টাকা ছাড় করলে ভালো ফল পাওয়া যেতো। বলা যায় স্পষ্টতই এখানে ওয়াসার সংশ্লিষ্টতা আছে।

দুদক কমিশনার বলেন, এসব বন্ধে টেকনিক্যাল লোকজনদের নিয়ে সারভেইলেন্স টিম গঠন করা যেতে পারে। প্রাক্কলন পর্যায়ে পেশাদারিত্ব বাড়াতে হবে। ওয়াসার অনেক কাজই অসমাপ্ত। সায়েদাবাদ পানি শোধনাগার প্রকল্প ও পদ্মা-যশোদিয়া প্রকল্পেরও অগ্রগতি নেই। মনিটরিং না বাড়ালে এভাবেই পড়ে থাকবে সব।

তিনি আরো বলেন, প্রকল্পগুলোতে বিদেশি অর্থায়নও থাকে। সরকারি অর্থও থাকে। উভয় স্বার্থ যেন রক্ষা পায়। সরকারের স্বার্থ তথা জনগণের স্বার্থ রক্ষা পাচ্ছে কম। এজন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা প্রতি জোরদার দেওয়া দরকার।  

এই বিভাগের আরো খবর

এফ আর টাওয়ারের তাসভীর গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারের নকশা জালিয়াতির অভিযোগে দুদকের মামলায় ভবনটির অন্যতম মালিক ও কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা...

ঘুষদাতার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,যে ঘুষ নেবে তার বিরুদ্ধে তো ব্যবস্থা নিতে হবেই, যে ঘুষ দেবে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is