রেনুর পরিবারকে ৫ কোটি টাকা দিতে রিট

প্রকাশিত: ১০:২২, ২৮ জুলাই ২০১৯

আপডেট: ১০:৫৪, ২৮ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাড্ডায় সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করাতে তথ্য নিতে গিয়ে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে হত্যার শিকার তাসলিমা বেগম রেনুর পরিবারকে পাঁচ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে রিট দায়ের করা হয়েছে।

রিটে তাৎক্ষণিক ক্ষতিপূরণ হিসেবে রেনুর পরিবারকে ১৫ দিনের মধ্যে ১০ লাখ টাকা দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। গণপিটুনিতে জড়িতদের বিচারে পৃথক আইন তৈরির নির্দেশনার পাশাপাশি গণপিটুনির হাত থেকে রেনুকে বাঁচাতে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, এই মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে রিটে গুজব-সংক্রান্ত সব পোস্ট ফেসবুক থেকে মুছে ফেলার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

রোববার (২৮জুলাই) সকালে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিট আবেদনটির শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। আজ সকালে জনস্বার্থে রিট আবেদনটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ইশরাত হাসান।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, আইন সচিব, তথ্য সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি), ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার ও বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) রিটে বিবাদী করা হয়।

গত ২০ জুলাই বাড্ডা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সন্তানের ভর্তির বিষয়ে খোঁজ নিতে গিয়ে তাসলিমা বেগম রেনু ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনিতে নিহত হন। ওই ঘটনায় অজ্ঞাত ৪০০-৫০০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাগনে সৈয়দ নাসির উদ্দিন টিটু।

রাজধানীর মহাখালীতে চার বছরের মেয়ে ও মাকে নিয়ে থাকতেন তিনি। দুই বছর আগে স্বামীর সঙ্গে রেনুর বিচ্ছেদ হয়। তাঁর ১১ বছরের একটি ছেলেও রয়েছে। ছেলেটি বাড্ডায় বাবার সঙ্গে থাকে।

এই বিভাগের আরো খবর

চীনা ব্যবসায়ী হত্যায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বনানীতে...

বিস্তারিত
নকল কসমেটিক ও হোমিওপ্যাথি ওষুধ জব্দ

গোপালগঞ্জ সংবাদদাত: গোপালগঞ্জে নকল...

বিস্তারিত
বনানীতে চীনা ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর বনানীর একটি...

বিস্তারিত
তারেক, ফখরুলসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ...

বিস্তারিত
যশোরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

যশোর সংবাদদাতা: যশোরে প্রতিপক্ষের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *