ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-19

, ১৯ মহররম ১৪৪১

তৃতীয়বার গিনেস বুকে মাগুরার ফয়সাল

প্রকাশিত: ১২:০৫ , ১৯ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ১২:০৫ , ১৯ আগস্ট ২০১৯

মাগুরা প্রতিনিধি: তৃতীয়বারের মতো গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে নাম লেখালেন মাগুরার মাহমুদুল হাসান ফয়সাল। এক মিনিটে ৩৪ বার ঘাড়ের উপর বল ঘুরিয়ে সবশেষ রেকর্ডটি গড়লেন তিনি।

এর আগে, ফ্রি স্টাইল আর্মরোলিং ক্যাটাগরিতে প্রথর্ম রেকর্ড গড়েন ২০১৮ সালে। আর দ্বিতীয় রেকর্ড গড়েন এবছরের এপ্রিল মাসে। সম্প্রতি গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ ফয়সালের তৃতীয় রেকর্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মাগুরা পলিটেকনিকের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র মাহমুদুল হাসান ফয়সাল। বয়স মাত্র ১৭ বছর।  কিন্তু এই অল্প বয়সেই তিন বার নাম লিখিয়েছেন গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে। এরমধ্যে দু’টি ছিল ফ্রি স্টাইল আর্মরোলিংয়ে। সহজভাবে বলতে গেলে হাত বা পায়ের মধ্যে বল ঘোরানোই হল আর্মরোলিং। আর এবার রেকর্ড গড়লেন ঘাড়ের উপর বাস্কেটবল ঘুরিয়ে।

ফয়সাল সর্বপ্রথম রেকর্ড গড়েছিলেন ২০১৮ সালের নভেম্বরে দুই হাতের মধ্যে ফুটবল ঘুরিয়ে এবং দ্বিতীয় রেকর্ড গড়েন চলতি বছরের এপ্রিলে হাতে বাস্কেটবল ঘুরিয়ে। এবার এক মিনিটের মধ্যে বিশ্বে সবচেয়ে বেশিবার ঘাড়ের উপর বাস্কেটবল বল ঘুরিয়ে গড়লেন তৃতীয় বিশ্ব রেকর্ড। এজন্য তাকে বল ঘোরাতে হয়েছে ৩৪ বার। আগে এই রেকর্ডের অধিকারী ছিলেন একজন আমেরিকান, যিনি এক মিনিটে ২৭ বার বল ঘুরিয়েছিলেন। ফয়সাল জানান, বল ঘোরানোর একটি ভিডিও গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডস কর্তৃপক্ষকে পাঠানো হয়েছিল। তারা ১৫ আগস্ট রাতে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

ফয়সালের এই প্রাপ্তিতে বেশ গর্বিত স্থানীয়রাও। এমন অর্জনকে স্বাগত জানিয়েছে জেলা ক্রীড়া সংস্থা। মাগুরা জেলা ক্রীড়া সংস্থা সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন আগামীতে ফয়সালকে সবধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন।

ভবিষ্যতে এমন আরো রেকর্ড গড়ার স্বপ্ন আছে ফয়সালের। সেজন্য কঠোর অনুশীলনও চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর

বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তিকে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান প্রদান

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন সংস্থা, মুক্তিযোদ্ধা, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও ক্রীড়াবিদকে ১৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকার অনুদান...

মাগুরায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে লাউ চাষ

মাগুরা প্রতিনিধি: মাগুরার বারইপাড়া, নড়িহাটি, শ্রীপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় কৃষকরা বাণিজ্যিকভাবে লাউ চাষ করছেন। জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে এ লাউ চাষ।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is