ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-18

, ১৮ মহররম ১৪৪১

এসইসি চেয়ারম্যানের দুর্নীতি তদন্তে দুদক

প্রকাশিত: ০১:৫৬ , ২১ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ০২:০০ , ২১ আগস্ট ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুর্বল কোম্পানির প্রাথমিক পাবলিক অফার-আইপিও অনুমোদন দিয়ে শেয়ারবাজারে বিক্রি করে বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খাযারুল হোসেনের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার (২১ আগস্ট) দুদকের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী এ বিষয়ে অনুসন্ধান শুরু করেন।

অর্থ আত্মসাতের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে বিদেশে অর্থপাচারের অভিযোগটিও খতিয়ে দেখছে দুদকের মানি লন্ডারিং শাখা।

দুদকের কাছে অভিযোগ রয়েছে, খায়রুল হোসেনের আট বছরের মেয়াদে প্রায় ৮৮টি আইপিও অনুমোদন হয়। এর মধ্যে প্রায় অর্ধশত আইপিও নিম্নমানের।  বেশ কয়েকটি নিম্নমানের কোম্পানি মিথ্যা তথ্য দিয়ে বার্ষিক আর্থিক বিবরণীতে উচ্চ মুনাফা দেখিয়ে সিকিউরিটিজ রেগুলেটরে আইপিও অনুমোদন করিয়ে নেয়। তালিকাভু হওয়ার পরে দেখা গেছে, বেশিরভাগ সংস্থার শেয়ারের সূচক নিচের দিকে যেতে শুরু করে। কোম্পানিগুলোর আগের আযয়ের রিপোর্টগুলো জাল ছিল বলেও অভিযোগ রয়েছে।

শেয়ারবাজারে অব্যাহত দরপতনে খায়রুল হোসেনের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা।

এই বিভাগের আরো খবর

৪ বছরেও বেসিক ব্যাংকের দুর্নীতির তদন্ত শেষ করতে পারেনি দুদক

তাসলিমুল আলম তৌহিদ: বেসিক ব্যাংকের সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা কেলেঙ্কারির তদন্ত কার্যক্রম চার বছরেও শেষ করতে পারেনি দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is