ঢাকা, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

2019-09-18

, ১৮ মহররম ১৪৪১

তিস্তার গতিপথ পরিবর্তন, চর জেগেছে সেতুর নীচে

প্রকাশিত: ১১:৪৬ , ২৫ আগস্ট ২০১৯ আপডেট: ১১:৫২ , ২৫ আগস্ট ২০১৯

রংপুর প্রতিনিধি: পানি প্রবাহ কমে যাওয়ায় বারবার গতিপথ পরিবর্তন হচ্ছে তিস্তা নদীর। ফলে চর জেগে উঠেছে শেখ হাসিনা দ্বিতীয় সেতুর নীচে। হুমকিতে পড়েছে রংপুরের মহিপুর-কাকিনা সড়ক। সাম্প্রতিক বন্যায় নদীর বাম তীরের ৭ কিলোমিটার এলাকা ভেঙ্গে শংকরদহ গুচ্ছগ্রাম বিলিনের মুখে রয়েছে। এ অবস্থায় তিস্তা নদীর বামতীরে প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণসহ নদীর নাব্যতা বাড়ানোর দাবি জানিয়েছে এলাকার মানুষ।

রংপুরের ভেতর দিয়ে বয়ে গেছে খরস্রোতা নদী তিস্তা। নাব্যতা কমে যাওয়ায় নদী চওড়া হয়েছে ৩ থেকে ৪ কিলোমিটার। আর ভাঙনে বারবার বদলেছে গতিপথ। প্রতিবছর বর্ষায় নদী তীরের শত শত গ্রাম প্লাবিত হয়, ভাঙে বসত বাড়ি-ফসলি জমি। নিঃস্ব হয় লাখো পরিবার।

তিস্তার ভাঙনরোধে ডান তীরে নির্মিত হয় তীর রক্ষা বাঁধ। কিন্তু তিস্তা গতিপথ পরিবর্তন করে বিনবিনার চর থেকে শংকরদহ ও ইচলি পর্যন্ত ৭ কিলোমিটার এলাকায় পূর্ববর্তী গতিপথে প্রবাহিত হচ্ছে। এর ফলে শেখ হাসিনা দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতুর নীচে চর পড়েছে। হুমকিতে আছে মহিপুর কাকিনা সড়কের ৩টি সেতু এবং শংকরদহ গুচ্ছগ্রাম।

এ অবস্থায় তিস্তা  সেতু ও মহিপুর-কাকিনা সড়ক রক্ষায় নদীর বাম তীরে ৭ কিলোমিটার এলাকায় বাঁধ নির্মাণের জন্য দাবি তুলেছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি আব্দুল্লা আল হাদী।

তবে পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, নাব্যতা বাড়িয়ে নদীর প্রশস্ততা ১ কিলোমিটারে কমিয়ে এনে দুই তীরে প্রতিরক্ষা বাঁধ নির্মাণ করা হলে এ সমস্যার সমাধান হবে।

 

এই বিভাগের আরো খবর

সিলেটে পাহাড় কেটে আবাসন প্রকল্প, নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ

সিলেট প্রতিনিধি: সিলেটে অবৈধভাবে পাহাড় কাটছে প্রভাবশালী মহল। পাহাড় কেটে প্লট তৈরি করে আবাসন প্রকল্প গড়ে তোলা হচ্ছে। নষ্ট হচ্ছে পরিবেশ ও...

জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে অভিযোজনের উপায় খোঁজার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক: জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে অভিযোজনের উপায় উদ্ভাবনের জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দর প্রতি জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is