পানির দেশেও খাবার পানির বিশাল বাজার

প্রকাশিত: ১০:০২, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১২:৩৬, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মাবুদ আজমী: বোতলজাত পানি অতি দ্রুত বেড়ে ওঠা বাজার। শুধু রাজধানীতেই প্রতিদিন বোতলজাত পানি বিক্রি হয় প্রায় পাঁচ কোটি লিটার, বলছে সরকারের মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা বি.এস.টি.আই। আর বড় জারে করে দৈনিক পানি বিক্রি হয় ১৫ কোটি লিটার। এখন পর্যন্ত সরকার ৪২টি কোম্পানিকে বোতলজাত ও ১৩৫টি প্রতিষ্ঠানকে জারের পানি বিক্রির অনুমতি দিয়েছে।  

বোতলজাত পানির বাজারের প্রচলন ঘটার পাঁচ বছরের মাথায় জারে করে পানির ব্যবসা শুরু হয়। বোতলের পানির বাজার গড়ে ওঠে ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে। জারের পানির লক্ষ্য প্রতিষ্ঠান। আলফাইন ওয়াটার নামের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান প্রথম জারের পানির বাণিজ্য শুরু করে, অভিজাত প্রতিষ্ঠানগুলোতে জায়গা পায়, দ্রতই বাজার বি¯তৃত হয়।  

জারের বা বোতলজাত পানি ছাড়া কেউ এখন বিশুদ্ধ পানির কথা ভাবতেই পারে না যেন।  তাই ফেরি করেও বিভিন্ন কোম্পানির বোতলজাত পানি বিক্রি হয় রাস্তা ঘাটে। যদিও এর মান নিয়ে প্রশ্ন, দ্বিধা আছে অনেকের।

বিএসটিআইয়ের তথ্য মতে, দেশে ১৩৫টি প্রতিষ্ঠানকে জারের পানি বিক্রির অনুমতি দিয়েছে সরকার। বোতলজাত পানির জন্য ৪২টি। রাজধানীতেই এখন দৈনিক বোতলজাত পানি বিক্রি হচ্ছে ৫ কোটি লিটার। আর জারের পানি বিক্রি হচ্ছে ১৫ কোটি লিটার।

বিদেশ থেকে বেতালজাত পানি আমদানি হয় খুব কম। কিছু বিদেশী কোম্পানী তাদের নিজের দেশের দূতাবাসের মাধ্যমে বোতলজাত পানি ঢাকার বাজারে ছোট পরিসরে আনে, যা বিএসটিআইয়ের হিসেবে নেই।

এই বিভাগের আরো খবর

ক্লাবে ক্যাসিনো বসিয়ে লাভবান হাতে গোনা ক’জন

মাবুদ আজমী: ক্যাসিনোর কালিমা লাগার পর...

বিস্তারিত
দিলকুশা ক্লাব দখল করে ক্যাসিনো চালু করেন সাঈদ

মাবুদ আজমী: মতিঝিলের ক্লাব পাড়ায় অবৈধ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *