সৌন্দর্য হারাচ্ছে সাগর কন্যা কুয়াকাটা

প্রকাশিত: ১১:২৬, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১১:২৬, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পটুয়াখালী প্রতিনিধি: সমুদ্র সৈকত কুয়াকাটাকে ভাঙ্গন থেকে রক্ষায় কাজ শুরু করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। তবে স্থানীয়দের অভিযোগ, অপরিকল্পিতভাবে বালির বস্তা ও টিউব ফেলায় সৈকতের সৌন্দর্য যেমন হারাচ্ছে তেমনি এই উদ্যোগ কাজেও আসছে না। কুয়াকাটাকে আন্তর্জাতিক মানের পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে পরিকল্পিত ও সমন্বিত উদ্যোগের আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

সাগর কন্যা কুয়াকাটা। পূর্বে গঙ্গামতি আর পশ্চিমে লেম্বুর বন পর্যন্ত দীর্ঘ আঠারো কিলোমিটার সৈকত নিয়ে বিস্তৃত সূর্যোদয় আর সূর্যাস্তের বেলাভূমি হিসেবে পরিচিত কুয়াকাটা। তবে সৈকতের জিরো পয়েন্টের দুই দিকে বেশ কয়েক কিলোমিটার এলাকায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। এই ভাঙন রোধে সম্প্রতি জরুরি রক্ষণাবেক্ষণ কাজ শুরু করে পানি উন্নয়ন বোর্ড। ঢেউ থেকে তীর রক্ষার জন্য বালিভর্তি টিউব এবং বস্তা ফেলা হচ্ছে।

স্থানীয় ও পর্যটকদের অভিযোগ, যেনতেনভাবে এসব বস্তা ও টিউব ব্যবহার করায় তা তেমন কাজে আসছে না। নষ্ট হচ্ছে সৈকতের সৌন্দর্যও।

পটুয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য মুহিব্বুর রহমান মুহিব বলেন, এক সময় দেশী বিদেশী পর্যটকদের কাছে কুয়াকাটা নিয়ে বাড়তি আকর্ষণ থাকলেও অপরিকল্পিত উন্নয়ন এবং পর্যটনবান্ধব পরিবেশ না থাকায় সেই আকর্ষণ অনেকটাই কমেছে। তবে কুয়াকাটাকে পরিকল্পিত পর্যটনকেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ চলছে।

১৯৯৬ সালে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুয়াকাটাকে পর্যটন নগরী হিসেবে ঘোষণা করেন। তবে কুয়াকাটাকে নিয়ে সরকারের মাস্টার প্ল্যান তৈরীর কাজ শেষ করলেও এখনও তার বাস্তবায়ন শুরু হয়নি।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩১ অক্টোবর

আজ বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৯, ১৬...

বিস্তারিত
বৈশাখী টেলিভিশনের অনুষ্ঠানসূচী, ৩০ অক্টোবর

আজ বুধবার, ৩০ অক্টোবর ২০১৯, ১৫ কার্তিক...

বিস্তারিত
নড়াইলে পান চাষে লাভবান কৃষকরা

নড়াইল প্রতিনিধি: অনুকূল আবহাওয়ায়...

বিস্তারিত
টাঙ্গুয়ার হাওরের জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: দূষণের কারণে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *