খালেদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থ পাচারের ৩টি মামলা

প্রকাশিত: ০৩:২১, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আপডেট: ০৯:৪২, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে র‌্যাবের হাতে আটক ঢাকা দক্ষিণ মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থ পাচার আইনে আলাদা তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিকেল সোয়া তিনটার দিকে ফকিরাপুলের ইয়ংমেন্স ক্যাসিনোর মালিক খালেদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা তিনটি করেছে র‌্যাব। 

এর আগে দুপুর আড়াইটায় খালেদকে গুলশান থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয় র‌্যাব। আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুর আড়াইটার দিকে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় গুলশান-২–এর নিজ বাসা থেকে খালেদ মাহমুদকে আটক করে র‌্যাব। এরপর আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১টা পর্যন্ত র‌্যাব-৩ হেফাজতে আটক খালেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সেখানে র‌্যাবের কাছে তিনি বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছেন বলে র‌্যাবের একাধিক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে অবৈধ অস্ত্র, মাদক ও ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগে খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে অস্ত্রসহ আটক করে র‍্যাব। আটকের পর তাকে র‍্যাব-৩ এর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

গ্রেফতারের সময় খালেদের বাড়ি থেকে ৪০০ পিস ইয়াবা, লকার থেকে ১০০০, ৫০০ ও ৫০ টাকার বেশ কয়েকটি বান্ডিল উদ্ধার করা হয়। সেগুলো গণনার পর ১০ লাখ ৩৪ হাজার টাকা পাওয়া যায়। এছাড়া ডলারেরও বান্ডিল পাওয়া যায়। টাকায় তা ৫-৬ লাখ টাকা হবে বলে র‌্যাব জানায়। এছাড়া তার কাছ থেকে মোট ৩টি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। যার একটি লাইসেন্সবিহীন, অপর দুটি লাইসেন্সের শর্তভঙ্গ করে রাখা হয়েছিল।

এই বিভাগের আরো খবর

খুলনায় বন্দুকযুদ্ধে ৪ জলদস্যু নিহত

ডেস্ক প্রতিবেদক: সুন্দরবনে র‌্যাব-৬...

বিস্তারিত
কুমিল্লায় ব্যবসায়ী হত্যা; ৯ জনের ফাঁসি

কুমিল্লা প্রতিনিধি: কুমিল্লার...

বিস্তারিত
নাইকো মামলায় খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক: নাইকো দুর্নীতি...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *