ঢাকার ক্লাবগুলোর নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে সংগঠক ও খেলোয়াড়রা

প্রকাশিত: ১০:১৯, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১১:৩৫, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফররুখ বাবু: ঢাকার এক সময়ের দাপুটে ফুটবল টিমের ক্লাবগুলোর নিয়ন্ত্রণে এখন আর খেলোয়াড় কিংবা সংগঠকরা নেই। ক্লাবের সাবেক সংগঠক ও খেলোয়াড়রা বলছেন, বর্তমানে মাঠের খেলার থেকে মাদক ও জুয়া বেশি চলে ক্লাবগুলোতে। আর এসবের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে সরকারি দলের কিছু স্থানীয় নেতা। জুয়া খেলার নিরাপদ আবাসস্থল হিসেবে ক্রীড়া ক্লাব ব্যবহার হলেও এই অর্থ খেলার মান উন্নয়নে ব্যবহার হয় না।

কীভাবে মতিঝিলের ক্লাবগুলো খেলাধুলা বিদায় দিয়ে নিষিদ্ধ ব্যবসা ক্যাসিনো চালু করলো সে বিষয়ে রয়েছে নানা মত। এসব ক্লাবে দীর্ঘকাল ধরেই জুয়ার চর্চা ছিলো, কিন্তু অনুমোদনহীন ক্যাসিনো কবে প্রবেশ করলো তার সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারছেন না ক্লাব সংগঠকরা।

ক্লাবগুলোর সাথে জড়িত কয়েকজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, আবাহনী, মোহামেডানসহ প্রায় সব ক্রীড়া ক্লাবেই জুয়ার প্রচলন ছিলো স্বাধীনতার পর থেকেই। তখন ওয়ান-টেন, তিন পাত্তি নামে জুয়া খেলা চলতো। এছাড়া সরকারিভাবে সপ্তাহে দিন নির্ধারণ করে হাউজি খেলার আয়োজন করা হতো ঢাকার ক্লাবগুলোতে। যার অর্থ ক্লঅব পরিচালনা ও খেলোয়াড়দের পেছনে খরচ হতো। তবে কোন কোন ক্লাবে হাউজি বন্ধের উদ্যোগ নেয়া হলেও তা ব্যক্তি স্বার্থের কারণে হয়নি।  

ক্রীড়া ক্লাবগুলোতে রাজনৈতিক প্রভাব বাড়ার কারণে ক্যাসিনোর মতো অবৈধ খেলার আয়োজন করা হচ্ছে বলে জানান সাবেক সংগঠকরা। সেই সাথে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও ক্ষমতাশীন দলের প্রভাবশালী নেতাদের সামনে রেখে ব্যক্তি স্বার্থে ক্লাবের মতো নিরাপদ স্থান অনৈতিক উপার্যনের কাজে ব্যবহার হচ্ছে।

ক্যাসিনো খোলার কারণে ক্লাবে মাদক প্রবেশ করেছে এমনটা মনে করছেন খেলোয়াড়রা। একই সঙ্গে ক্লাবে রাজনৈতিক প্রভাব মাঠের খেলার পরিবর্তে জুয়া খেলার প্রচলন ঘটালেও সেই অর্থ খেলার মান উন্নয়নে ব্যবহার হয় না।

রাজনৈতিক নেতারা ক্লাবের পদ দখল না করে অর্থদাতা হিসেবে থাকলে ক্লাবগুলো অনৈতিক কাজ মুক্ত হবে বলে মত সংগঠকদের।

 

এই বিভাগের আরো খবর

দুর্ঘটনায় ভারতের ৪ হকি খেলোয়াড় নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ধ্যানচন্দ্র...

বিস্তারিত
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক: লিংকোনে সিরিজের পঞ্চম ও...

বিস্তারিত
ইউরো বাছাইপর্বে জয় ইতালির

ক্রীড়া ডেস্ক: ইউরো বাছাইপর্বে জয়...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *