ছাত্র রাজনীতির সংস্কার চান সাবেক নেতারা

প্রকাশিত: ০৭:১২, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

আপডেট: ০৭:১২, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: নৈতিক অবক্ষয়ের কারনে বর্তমানে ছাত্র রাজনীতি বিপথে যাচ্ছে বলে অভিমত সাবেক ছাত্র নেতাদের। তাদের মতে, কল্যাণধর্মী কাজ এবং নতুন নেতৃত্ব তৈরির পরিবর্তে নিজেদের আখের গোছাতেই রাজনীতি করছে শিক্ষার্থীরা, যার প্রভাবে অস্থিরতা তৈরি হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে। বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় ছাত্র রাজনীতির ধারা সংস্কারের জোর তাগিদ দেন সাবেক ছাত্র নেতারা।

বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ হয়ে নব্বইয়ের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে দেশের ছাত্র সমাজ। অধিকারবঞ্চিত, নির্যাতিত মানুষের রাজনৈতিক আন্দোলনে ছাত্র সংগঠনগুলো বরাবরই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসলেও পরবর্তিতে ছাত্র রাজনীতি তার নিজস্ব গতিপথ পাল্টাতে থাকে।

এর ফলে, দলীয় কোন্দল, দুর্নীতি এমনকি সহপাঠী নির্যাতন ও হত্যারমত অভিযোগ ওঠে ছাত্র সংগঠন গুলোর সদস্যদের বিরুদ্ধে। সা¤প্রতিক সময়ে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে পদচ্যুত করা হয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে। সবশেষ বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার অভিযোগও ওঠে সরকারি দলের ছাত্র সংগঠনের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধেই।

সাবেক ছাত্র নেতাদের মতে বিগত কয়েক দশকে ছাত্র রাজনীতি গতিপথ ও চরিত্র পাল্টেছে। কল্যাণ ধর্মী থেকে, অপরাধে নিমজ্জিত হয়েছে জানালেন সাবেক ছাত্রনেতা তোফায়েল আহমেদ ও মাহফুজা খানম। তবে ভবিষ্যতের যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তুলতে ছাত্র রাজনীতি সং¯কারের পরামর্শ দেন তারা।

সাবেক ছাত্র নেতাদের মতে, দেশের উন্নয়নেই ছাত্র রাজনীতি টিকিয়ে রাখা প্রয়োজন। তবে, কেন্দ্রীয় রাজনীতি থেকে বিকেন্দ্রীকরণ করে ছাত্র সংগঠনগুলোতে নৈতিক মূল্যবোধ ও গঠনমূলক রাজনীতি চর্চার সুযোগ তৈরির পরামর্শ তাদের।
 

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *