শিশুর রক্তশূন্যতায় করণীয়

প্রকাশিত: ১২:৪২, ০৬ নভেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১২:৪২, ০৬ নভেম্বর ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক: অ্যানিমিয়া বা রক্তশূন্যতা যাকে আবার রক্তস্বল্পতাও বলা যায়অপুষ্টি জনিত কারণে অসংখ্য শিশু এই স্বাস্থ্য সমস্যায় ভোগেশিশুর রক্তাল্পতা সাধারণত শরীরে আয়রন, ফলিক এসিড, ভিটামিন ’ ‘বি-১২ও প্রোটিনের ঘাটতির জন্য হয়ে থাকেএতে ক্ষুদামন্দা, ফ্যাকাশে ভাব, মেজাজ খিটখিটে হওয়ার মতো প্রাথমিক উপসর্গ দেখা দেয়পরে বুক ধড়পড় করে, শ্বাসকষ্ট ও সামান্যতেই শিশু ক্লান্ত হয়ে পড়ে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, ৬ মাস থেকে ৬ বছর বয়সী শিশুর রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা (লেভেল) যদি ১১ গ্রাম নিচে থাকলে সেই শিশুটি রক্তস্বল্পতায় ভুগছে৬ থেকে ১৪ বছর বয়সীদের ক্ষেত্রে এই মাত্রা হবে ১২ গ্রামের নিচে

শিশুর বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীরের অস্থিমজ্জায় রক্ত তৈরি হতে শুরু করেরক্ত তৈরিতে কাজ করে আয়রন বা লৌহতাই বয়স বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে চাহিদা বাড়তে থাকে বলে শিশুর খাবার তালিকায় নিয়মিত আয়রনসমৃদ্ধ খাবার রাখতে হবেনয়তো অ্যানিমিয়া বা রক্তশূন্যতা দেখা দেবেআয়রনের অভাবজনিত রক্তাল্পতায় শিশুর বৃদ্ধি ও বিকাশ বিলম্বের কারণ হতে পারে

শিশুর প্রথম ছয় মাস শিশু মাতৃদুগ্ধ পান করে বলে শিশুর মাকে আয়রন ,ভিটামিন ও প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার দিতে হবেএকই সাথে চার মাস বয়স থেকে শিশুকে মায়ের বুকের দুধের পাশাপাশি অল্প অল্প করে পরিপূরক খাবার খাওয়ানো শুরু করতে হবেপ্রাণিজ ও উদ্ভিজ্জ খাদ্য উৎস থেকে আয়রন পাওয়া যায়তাই খাবার তালিকায় রাখতে পারেন মাছ, মাংস, ডিম, কলিজার মতো প্রাণিজ আয়রন সমৃদ্ধ খবারউদ্ভিজ্জ আয়রনের জন্য আপনার শিশুকে শুকনা ফল, শুকনা এপ্রিকট, শুকনা ডুমুর, বাদাম, কিশমিশ, সবুজ শাকসবজি, ব্রকলি, পালংশাক খাওয়াতে পারেন

যেসব বাড়ন্ত শিশু অন্যান্য খাবারের চেয়ে দুধ বেশি পান করে, তাদের আয়রনের অভাবজনিত রক্তাল্পতার ঝুঁকি থাকেতাই মুধু দুধ খাওয়ালে চলবে নাদুই বছরের বেশি বয়সী শিশুদের পর্যাপ্ত পরিমাণ আয়রন নিশ্চিত করতে দুধের পরিমাণ ক্রমশ ৫০০ মিলিলিটারে কমিয়ে আনতে হবেছয় মাস বয়স হলেই শিশুকে অল্প অল্প করে ডিমের কুসুম খাওয়ানোর অভ্যাস করতে হবে

শিশুকে ধীরে ধীরে মাছ, মাংস, তাজা শাকসবজি ও ফলমূল ইত্যাদি খাবারে অভ্যস্ত করে তুলুনএ ছাড়া রক্তস্বল্পতা প্রতিরোধের জন্য প্রতিদিনের খাবারে লৌহ, আমিষ, ভিটামিন সি, ফলিক অ্যাসিড ও ভিটামিন-১২ রাখতে হবেশিশুর বয়স ছয় বছরের বেশি হলে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় সবুজ শাকসবজি, ফল রাখতে হবেবিশেষ করে আনারস , পেঁপেঁ, দুগ্ধজাত খাবার কাওয়াতে হবে

শিশুকে পুষ্টিকর খাবার খাওয়ানোর পাশাপাশি লক্ষ্য রাখতে হবে শিশুর পেটে কৃমি আছে কি নাথাকলে কৃম নাশক ওষধ খাওয়াতে হবেকৃমি রোধে পরিচ্ছন্নতার দিকে নজর দিননিয়মিত পুষ্টিকর খাবার খাওয়ালে সহজেই শিশু রক্তশূন্যতা কাটিয়ে উঠতে পারবে

এই বিভাগের আরো খবর

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাবে বাঁধাকপি

অনলাইন ডেস্ক: শীতে বাজারে পাওয়া যায়...

বিস্তারিত
ক্যাপসিকামের নানান গুন

অনলাইন ডেস্ক: ক্যাপসিকাম সারা বিশ্ব...

বিস্তারিত
শীতে যে কারণে নিয়মিত আঙ্গুর খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: আঙ্গুর বিদেশি ফল হলেও...

বিস্তারিত
শীতে আদা খাওয়ার উপকারিতা

অনলাইন ডেস্ক: আদা খাবারে বিশেষ করে...

বিস্তারিত
মানবদেহের তাপমাত্রা কমছে! 

ফারহীন ইসলাম টুম্পা : শুনে অবাক হতে...

বিস্তারিত
খালি পেটে ফল খেলে কী হয়?

অনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন পুষ্টির...

বিস্তারিত
স্বাস্থ্য সুরক্ষায় আস্থা বেড়েছে রোগীদের

শাহনাজ ইয়াসমিন: নতুন প্রত্যাশা নিয়ে...

বিস্তারিত
রাতে কেন রুটি খাবেন

অনলাইন ডেস্ক: কেউ ওজন কমাতে, কেউ কেউ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *