সম্পর্কে সব কিছুতে ছাড় দিতে নেই

প্রকাশিত: ১২:২৩, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১২:২৩, ০৮ নভেম্বর ২০১৯

অনলাইন ডেস্ক: প্রেম অথবা বিবাহ বন্ধন, যে কোন সম্পর্ক মধুর করতে সঙ্গীকে বুঝতে পারাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। স্বাভাবিক ভাবেই সম্পর্কের শুরু মানে একজন আরেকজনের অনেককিছু মানিয়ে নিয়ে একসঙ্গে চলা। নিজেদের অনেক মিলের মধ্যেই অনেক অমিল খুঁজে পেতে পারেন আপনি। তারপরও ছাড় দিয়ে চলতে হয়। এখানেই হয়তো প্রেম বা সম্পর্ক মধুর হয়ে ওঠে। তবে খেয়াল রাখতে হবে, সেই ছাড় যেন একপাক্ষিক না হয়, মাত্রটা যেন ছাড়িয়ে না যায়।

সব সম্পর্কেরই সামঞ্জস্যতা থাকতে হয়। তা না হলে সম্পর্কের সৌন্দর্য হারিয়ে যায়। যখন আপনি আপনার সঙ্গীকে বুঝতে পারবেন। ছাড় দেওয়াটা দুদিক থেকেই চলতে হবে। এমনটা হলে সেই সম্পর্ক বেশিদিন সুন্দর থাকবে না। সব বিষয়ে এক পক্ষ ছাড় দিলে, সম্পর্কে তিক্ততা চলে আসে। তাই কিছু বিষয়ে ছাড় দেওয়া যাবে না।

নিজের পছন্দে গুরুত্ব দিন: সঙ্গীর পছন্দকে গুরুত্ব দেওয়ার পাশাপাশি নিজের পছন্দকেও গুরুত্ব দিতে হবে। নিজের পছন্দ-অপছন্দের বিষয়গুলো সঙ্গীর সাথে শেয়ার করুন। দেখায়ায় নিজের পছন্দ বলি দিয়ে সঙ্গীর পছন্দ মেনে নিলে সেই বিষয় নিয়েই মনে ক্ষোভ তৈরি হতে পারে। তারচেয়ে বরং সঙ্গীর পছন্দের পাশাপাশি নিজের পছন্দকেও সমান গুরুত্ব দিন।

ঝগড়া করুন: অবাক হওয়ার কিছু নেই। তবে অবশ্যই যৌক্তিক ঝগড়া করতে হবে। ঝগড়া হওয়া সম্পর্কের জন্য ভালো। সাধারণত ঝগড়ার সময় মেয়েরা চুপ করে যান। কিন্তু তাতে সমস্যার সমাধান না হয়ে আরও বাড়ে। তাই অযৌক্তিক ঝগড়া না করে বরং দুজনে মিলে সমস্যার মূল খুঁজে বের করুন।

নিজের সময়ের মূল্য দিতে শিখুন: আপনার সময়ের দাম যে কোনো অংশে কম নয়। সে বিষটি নিয়ে সঙ্গীর সাথোআলোচনা করেনিন। আপনার সঙ্গী ডাকলেই ছুটে যান কিন্তু আপনার জন্য আলাদা করে তার সময় হয় না। যদি এমনটা হয় তবে সতর্ক হোন। নিজেদের মধ্যে ভুলবোঝাবুঝি দূও করুন। আপনি তাকে কতটা ম্যল্যায়ন করেন বা তার থেকে কতটা মূল্যায়ন আশা করেন তা তা নিয়ে দুজনেই স্পষ্ট নিন।

নিজস্বতা বজায় রাখুন: সম্পর্কের ক্ষেত্রে সবসময় সব বিষয়েই যে দুজন মানুষের মধ্যে পুরোটাই মিল থাকবে এমনটা ভাবা অবান্তর। দুজনের মধ্যে বেশিরভাগ অমিল থাকাই স্বাভাবিক। তাই অমিল নিয়ে ঝগড়াঝাটি না করে মেনে নিন। নিজেদেও অমিলগুলো বুঝার চেষ্টা করুন। তাতে ভুল বোঝাবুঝি কম হবে। সম্পর্কও সুন্দর থাকবে।

শখগুলো বাঁচিয়ে রাখুন: প্রেম বা বিয়ের সম্পর্কে জড়ালে মানুষ অনেক প্রিয় বিষয়ই এড়িয়ে চলতে শুরু করে। কিন্তু যে বৈশিষ্ট্যগুলো মিলিয়েই আপনি। যে শখগুলো একসময় আপনাকে সামনে এগিয়ে চলার শক্তি দিত, তার থেকে দূরে সরে গেলে বরং নিজস্বতা হারাবেন। তাই যা কিছু শখ কিংবা প্রিয় কাজ, তা ধরে রাখুন।

নিজেকে স্পেস দিন: সব সময় সঙ্গীর সঙ্গে বাইরে বের হতে হবে এমন কোনো কথা নেই। সঙ্গীকে ঠিক ততটা স্পেস দিন যতটা আপনি নিজের জন্য রাখতে পারবেন। দুজনেরই আলাদা আলাদা বন্ধু সার্কেল থাকতে পারে। তাদের সঙ্গে আলাদা করে আড্ডা দেয়াই যেতে পারে। সঙ্গীর সময় না হলে নিজেই ঘুরে বেড়ান, শপিং করুন। এতে মন ভাল থাকবে।

এই বিভাগের আরো খবর

গিনেস রেকর্ডসে নাম লেখালেন কেশবতী

অনলাইন ডেস্ক: সুন্দর লম্বা চুল দিয়ে...

বিস্তারিত
নিয়মিত কফি পানে ওজন কমে

অনলাইন ডেস্ক: সকালে ঘুম থেকে উঠে এক...

বিস্তারিত
যে কাজগুলো ভালোবাসা গভীর করে

অনলাইন ডেস্ক: গভীর ভালোবেসে যে সুখ...

বিস্তারিত
রুই মাছের ডিম দিয়ে কাবাব

অনলাইন ডেস্ক: মাছ কিংবা মাংস নয়, মাছের...

বিস্তারিত
যে বিপদ হতে পারে অতিরিক্ত ঘুমের কারণে 

অনলাইন ডেস্ক: প্রতিদিনের ক্লান্তি...

বিস্তারিত
পেছনে হাটলে যে উপকার হয়

অনলাইন ডেস্ক: শরীর ও মন সুস্থ রাখতে...

বিস্তারিত
ঘাম না ঝড়িয়ে যেভাবে বাড়তি ওজন কমাবেন

অনলাইন ডেস্ক: বয়সের কারণে অথবা...

বিস্তারিত
স্ত্রীর যে ৪টি গুণ থাকলে আপনি ভাগ্যবান

অনলাইন ডেস্ক: সংসার জীবনে স্ত্রীকে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *