আসককে জরিমানা আইন বহির্ভূত: শীপা হাফিজা

প্রকাশিত: ০৭:৫২, ১৫ নভেম্বর ২০১৯

আপডেট: ০৮:৪৬, ১৫ নভেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের-রাজউক ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আইন ও সালিশ কেন্দ্র-আসককে জরিমানা ও কার্যালয় ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশকে আইন বহির্ভূত বলে অভিযোগ করেছেন সংস্থাটিএকইসাথে এই অভিযান উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে রাজউকের বিরুদ্ধে আইনি পদেক্ষপ নিবে বলেও জানিয়েছেন তারা

গতকাল বৃহস্পতিবার রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত আসককে দুই লাখ টাকা জরিমানা এবং দুই মাসের মধ্যে কার্যালয় ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশের প্রেক্ষিতে আজ (শুক্রবার) এক সংবাদ সম্মেলনের একথা বলেন সংগঠনটির নির্বাহী পরিচালক শীপা হাফিজা

 

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার আসক কার্যালয় ভবন মালিকের রাজউকের নকশাবহির্ভূত গ্যারেজের অংশে অভিযান চালান ভ্রাম্যমান আদালতএ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার আসক কার্যালয়ে এসে আবাসিক এলাকায় অফিস পরিচালনার কারণ জানতে চান

শীপা হাফিজ আরো জানান, আসকের পক্ষ থেকে সব তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করা হয় এবং জানানো হয় ভাড়াটিয়া হিসেবে সব শর্ত মেনেই আসক অফিস পরিচালনা করছেসবকিছু জানানোর পরেও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমারত নির্মাণ আইন ১৯৫২ এর ৩(ক) ধারা মতে, আসককে আগামী দুই মাসের মধ্যে কার্যালয় ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশনার পাশাপাশি দুই লাখ টাকা জরিমানা করেনঅথচ আইনের ওই ধারাটি ভবন মালিক, নির্মাণ প্রতিষ্ঠান ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে প্রযোজ্যআসক শুধু ভাড়াটে হিসেবে ভবনটি ব্যবহার করছেকিন্তু ভ্রাম্যমাণ আদালত বিষয়গুলো আমলে না নিয়ে জরিমানা বহাল রাখেন এবং জরিমানা আদায় করেন

এসময় শীপা হাফিজ অভিযোগ করে বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালত আইন ২০০৯ অনুযায়ী, অভিযোগ অস্বীকার করে বিচারিক আদালতে যাওয়ার সুযোগ রয়েছেকিন্তু রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত এসব যুক্তি না মেনে জোরপূর্বক স্বীকারোক্তিমূলক স্বাক্ষর আদায় করেনএমনকি আসকের পক্ষ থেকে অভিযোগ অস্বীকার করলে ম্যাজিস্ট্রেট অফিস সিলগালাসহ কর্মীদের গ্রেফতারের হুমকি দেন

বিশেষ কী উদ্দেশ্যে ইমারত নির্মাণ আইনে আসককে জরিমানা করা হয়েছে প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, আদালত পরিচালনার শেষ পর্যায়ে আদেশের কপি আসককে দেওয়ার অনুরোধ করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অপারগতা প্রকাশ করেনএমনকি লিখিত আবেদন করলেও তিনি আদেশের কপি দেননি

আদালতের উদ্দেশ্যের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা বিষয়টি সেভাবে জানি নাতবে ভ্রাম্যমাণ আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের পদক্ষেপ আইন অনুযায়ী মনে হয়নিতিনি আমাদের গ্রেফতারের হুমকি দিচ্ছিলেন, এমনকি আমার এক সহকর্মীকে পুলিশ প্রহরায় একটি কক্ষে আবদ্ধ করে রাখেনএতে মনে হয়েছে কেউ না কেউ বিশেষভাবে আসকের উপর ক্ষুব্ধ, জানি না তারা কারাএছাড়া, ভ্রাম্যমাণ আদালত এলে এলাকার বিভিন্ন ভবনে যানকিন্তু তিনি শুধু আমাদের ভবনেই অভিযান চালিয়েছেন

তিনি বলেন, আমরা প্রায় আড়াই ঘণ্টা ধরে বোঝানোর চেষ্টা করেছি, ইমারত নির্মাণ আইনের সঙ্গে ভাড়াটের সংশ্লিষ্টতা নেইনির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট যে মানসিকতা নিয়ে এসেছেন, আমাদেরই ভয় দেখানোর চেষ্টা করেছেনবাড়িওয়ালা সামনে বসা থাকলেও তাকে প্রশ্ন না করে আমাকে করেছেনএতে মনে হয়েছে তাদের কোনো উদ্দেশ্য ছিল

অপর এক প্রশ্নের জবাবে আসকের নির্বাহী কমিটির মহাসচিব তাহমিনা রহমান বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে যে অর্ডার দেওয়া হয়েছে এটিকে আইনানুগ বলে মনে করছি নাএটা আমরা একেবারেই মেনে নিচ্ছি নাআইন অনুযায়ী যে পদক্ষেপের রাস্তা খোলা রয়েছে, সাংবিধানিকভাবে যে পদক্ষেপ নেওয়া যায়, সে অনুযায়ী আমরা সব পদক্ষেপ নেবোএ বিষয়ে আমরা শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেবো, তবে যাই করবো স্বচ্ছতার সঙ্গে করবো

এই বিভাগের আরো খবর

কলাবাগানে নারীর মরদেহ উদ্ধার, একজন আটক

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাজধানীর কলাবাগান...

বিস্তারিত
৬৬০ ওসিকে আইজিপির কঠোর বার্তা

অনলাইন ডেস্ক: দেশের সকল থানার...

বিস্তারিত
ঠিকাদার মিঠুর চিঠি গ্রহণ করেনি দুদক

নিজস্ব সংবাদদাতা: স্বাস্থ্যখাতের...

বিস্তারিত
কমলাপুর রেলস্টেশনে ৪ কেজি স্বর্ণ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর কমলাপুর...

বিস্তারিত
শিগগিরই রিজেন্টের শাহেদকে গ্রেফতার: র‌্যাব

অনলাইন ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের নমুনা...

বিস্তারিত
বান্দরবানে ৬ খুনের মামলা হয়নি এখনো

বান্দরবান সংবাদদাতা: বান্দরবানে...

বিস্তারিত
শিশু সাদিয়া হত্যার রহস্য উদঘাটন

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর আদাবরে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *