মিয়ানমার বয়কটের ডাক বিশ্বজুড়ে

প্রকাশিত: ০৯:৩৫, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১০:১৩, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত আইসিজেতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শুনানি হবে। সেই শুনানিকে সামনে রেখে নেপিদোর ওপর চাপ জোরালো করতে ‘মিয়ানমার বয়কট’-এর ডাক দিয়েছে ১০টি দেশের ৩০টি সংগঠন।সম্প্রতি মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি  নিজ দেশের সেনাবাহিনীর রেহিঙ্গা গণহত্যার পক্ষে সাফাই গাইতে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে গেছেন। 

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, সু চি যখন হেগ-এ অবস্থান করছেন, তখন জার্মানভিত্তিক ফ্রি রোহিঙ্গা কোয়ালিশনস নামের প্ল্যাটফর্ম থেকে ‘বয়কট মিয়ানমার ক্যাম্পেইন’ শুরু করা হয়েছে। সংগঠনটির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গণহত্যা মামলার শুনানিকে সামনে রেখে ৩০টি মানবাধিকার, শিক্ষাবিদ এবং পেশাদারদের সংগঠন মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, কূটনৈতিক ও রাজনৈতিক চাপ বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছে ফরসি ডট কো, রেস্টলেস বিংস, ডেস্টিনেশন জাস্টিস, রোহিঙ্গা হিউম্যান রাইটস নেটওয়ার্ক অব কানাডা, রোহিঙ্গা হিউম্যান রাইটস ইনিশিয়েটিভ অব ইন্ডিয়া ও এশিয়া সেন্টারের মতো সংগঠনগুলো।

২০১৭ সালের আগস্টে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর পূর্বপরিকল্পিত ও কাঠামোগত সহিংসতা জোরদার করে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। হত্যাকাণ্ড, সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগের বাস্তবতায় জীবন বাঁচাতে নতুন করে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে সাত লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা।

এই নৃশংসতাকে ‘গণহত্যা’ আখ্যা দিয়ে গত ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালত ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিস (আইসিজে)-এ মামলা করে গাম্বিয়া। ওই মামলার শুনানিতে অংশ নিতে মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা সু চি এখন হেগ-এ অবস্থান করছেন।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

চীনে বন্যায় নিখোঁজ ১৪১ জনের প্রাণহানির আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভয়াবহ বন্যায় চীনে...

বিস্তারিত
পোল্যান্ডের নির্বাচনে জয়ের পথে আন্দ্রেজ দুদা

অনলাইন ডেস্ক: করোনা  প্রকোপের মধ্যে...

বিস্তারিত
নির্যাতিত নারীদের জন্য বই লিখছেন মালালা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নির্যাতন কিংবা...

বিস্তারিত
নেপালে বন্যা-ভূমিধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : টানা ভারী বর্ষণের...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *