গণঅভ্যুত্থানের পর আনপ্যারালাল লিডার হয়ে ওঠেন বঙ্গবন্ধু

প্রকাশিত: ১০:৩৭, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

আপডেট: ১১:০৯, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

গোলাম মোর্শেদ: এবার এক বিশেষ সময়ের মুখে এসেছে বিজয়ের মাস ডিসেম্বর। যিনি স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন এবং দেখিয়েছিলেন মানুষকে, সেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী আসছে মার্চে।

স্বাধীনতার জন্য তাঁর দীর্ঘ ত্যাগী সংগ্রাম একাত্তরে খুঁজে পায় কাংখিত ঠিকানা। বঙ্গবন্ধুর নামেই জীবন উৎসর্গ করে স্বাধীনতা ছিনিয়ে আনতে জাতি, ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ নির্বিশেষে এই ভুখন্ডের মানুষ একাত্তরের রক্তক্ষয়ী মহান মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল।

কী করে বাঙ্গালির স্বাধীনতার ঠিকানা, মুক্তির প্রতীক হয়ে উঠেছিলেন বঙ্গবন্ধু? যাদুর ছোঁয়ায় কোন স্বপ্নের বীজ বুনে দিয়েছিলেন তিনি মানুষের হৃদয়ে? বিজয়ের পথ তৈরি করা সেই মহানেতার অবদানগুলোকে ঘিরে ইতিহাসের কিছু স্বাক্ষীর সাক্ষাৎকার ভিত্তিক ধারাবাহিক আয়োজন।

বাঙালীর স্বাধীনতা মুক্তি সংগ্রামে ১৯৬৯ সাল পর্যন্ত ব্যক্তি নেতা শেখ মুজিব থাকলেও মূলত গণঅভ্যূত্থানের পর বঙ্গবন্ধু হয়ে উঠেছিলেন তিনি, এমন পর্যবেক্ষণ ঐতিহাসিক সময়ের স্বাক্ষীদের। স্বাধীনতা সংগ্রামে ছাত্র ইউনিয়ন নেতা মাহবুব জামান বলেন, তার নেতৃত্ব গড়ে উঠেছিল মাঠ থেকে। তবে ৬৯ পর্যন্ত শেখ মুজিব এরপরই বঙ্গবন্ধু উপাধি লাভ করেন। স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুকে কাছ থেকে দেখা ক্রীড়াবিদ আবদুস সাদেক বলেন, ছাত্রজীবন থেকে জেনেছি বিশাল ব্যক্তিত্বের অধিকারী। দফা, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুন্থান আনপ্যারালাল লিডার হয়ে ওঠেন শেখ মুজিব।

তারা জানান নিজের ব্যক্তিত্ব, রাজনৈতিক দুরদর্শীতা, মানবিক মূল্যবোধ দিয়ে শুধু রাজনৈতিক অঙ্গন নয়, বিভিন্ন পেশার মানুষকে আকৃষ্ট করতে পেরেছিলেন বঙ্গবন্ধু। আবদুস সাদেক বলেন, স্বাধীনতার পর ভারতে খেলতে যাওয়ার আগে তার সাথে দেখা করতে গেলে ছোটখাটো এক খেলোয়াড়কে দেখে বলেছিলেন কিরে তুই আবার খেলতে পারিস নাকি; খেলার বিষয়ে উৎসাহ দিতেন, তার আগ্রহ ছিল।

সমসাময়িক বড়বড় রাজনৈতিক নেতার পদচারণার ভীড়েও মানুষকে জাগানোর অনন্য সাধারণ বৈশিষ্ট্যই বঙ্গবন্ধুকে আলাদা করেছিল বলে মনে করেন, তার সান্নিধ্য পাওয়া বক্তিদের জন। আবদুস সাদেক আরো বলেন, ৩২ নাম্বার বাসায় গেলে দেখা যেত খুবই সাধারণ জীবনযাপন করতেন বঙ্গবন্ধু, মোড়ায় বসে ভাত খেতেন। উনি যা বলতেন মানুষ উজ্জীবিত হতো। অনেকে বলতেন মানুষকে নিয়ে খেলতে পারতেন বঙ্গবন্ধু। আর মাহবুব জামান বলেন, মানুষের প্রতি আবেগ ছিল বঙ্গবন্ধুর। একবার এক কর্মীর কথা স্মরণ করে বলছিলেন কামরুদ্দিনের ছেলেটা মারা গেলরে... এই যে আবেগ এটাই তাকে অনন্য সাধারণ করেছিল।

এই বিভাগের আরো খবর

করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত মৈত্রী হাসপাতাল

লাবণী গুহ: করোনাভাইরাস মোকাবেলায়...

বিস্তারিত
নেতাদের মধ্যে নেতা হয়ে উঠেছিলেন বঙ্গবন্ধু

কাজী বাপ্পা: এবার এক বিশেষ সময়ের মুখে...

বিস্তারিত
কথা, দর্শন আর প্রজ্ঞায় আকৃষ্ট করতেন বঙ্গবন্ধু

পার্থ রহমান: এবার এক বিশেষ সময়ের মুখে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *