সোনার বাংলা গড়ার অংশীদার হবে বৈশাখী টিভি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৪:৪০, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯

আপডেট: ০৫:২০, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের জনপ্রিয় বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেল বৈশাখী টেলিভিশন ১৫ বছরে পদার্পণ উপলক্ষে চ্যানেলটির উদ্যোক্তা, সাংবাদিক, কলাকুশলী, কর্মকর্তা-কর্মচারিসহ সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক বাণীতে তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার সব সময়ই দেশে গণমাধ্যমের বিকাশে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদে আওয়ামী লীগ সরকারই দেশে প্রথম বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেলের অনুমোদন দেয়।’

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বাণীতে আরো বলেন, ‘বর্তমান যুগে টেলিভিশনকে শুধু বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ভূমিকা রাখলে চলবে না। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ অনুষ্ঠান পরিবেশনের মাধ্যমে দেশের মানুষের উন্নত মনন গঠন এবং জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসসহ নানা অপতৎরতা দমনে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে অবদান রাখতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা রুপকল্প ২০২১ ২০৪১ বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। এই লক্ষ্য অর্জনে গণমাধ্যম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। এজন্য আমরা ২০০৯ সাল থেকে গণমাধ্যম, তথ্য তথ্য-প্রযুক্তির বিকাশে ব্যাপক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি। আমরা তথ্য অধিকার আইন-২০০৯ প্রণয়ন তথ্য কমিশন প্রতিষ্ঠা করেছি।

সরকার প্রধান আশা প্রকাশ করেন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতিরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে বৈশাখী টেলিভিশন তাদের সম্প্রচার কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

বাণীতে বৈশাখী টেলিভিশনের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *