হুয়াওয়েকে কেন এতো ভয় আমেরিকার?

প্রকাশিত: ০৬:৩৮, ১৪ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৬:৩৮, ১৪ জানুয়ারি ২০২০

ফারহীন ইসলাম টুম্পা: সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে চীনা মোবাইল কোম্পানি হুয়াওয়ে তাদের ফাইভ-জি কার্যক্রম পরিচালনার আগ্রহের কথা জানিয়েছেআর বরিস জনসন সরকার বিষয়টিতে সম্মতি দিলে তা সরাসরি পাগলামি হবে বলে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন

সংবাদমাধ্যম ফোর্বস-এর খবর অনুযায়ী এমনটাই মত যুক্তরাষ্ট্রেরগত বছর নিরাপত্তার কথা বলে হুয়াওয়েকে কালো তালিকাভুক্ত করে যুক্তরাষ্ট্রএ মাসের শেষ নাগাদ যুক্তরাজ্যে হুয়াওয়ের ভূমিকা সংক্রান্ত বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে

এখন প্রশ্ন হলো বিষয়টি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এতো মাথাব্যাথার কারণ কি? এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, হুয়াওয়ের যন্ত্রপাতি জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি বলে মনে করে যুক্তরাষ্ট্রএমনকি গোপনে প্রতিষ্ঠানটি চীন সরকারের কাছে তথ্য তুলে দিচ্ছে বলেও অনেকদির ধরে অভিযোগ করে আসেছে দেশটিঅবশ্য এ ধরনের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছে হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ

এর আগে মার্কিন সিনেটর টম কটন হুয়াওয়ের ফাইভ-জি নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি ব্যবহারসংক্রান্ত একটি বিল পেশ করেছেনওই বিল অনুযায়ী, যেসব দেশ ফাইভ-জি বাস্তবায়নে হুয়াওয়ের প্রযুক্তি ব্যবহার করবে, তাদের সঙ্গে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় বন্ধ করে দেওয়ার কথা বলা হয়েছেতবে বিলটি পাশ হলে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের মধ্যেকার সম্পর্কে ব্যাপক প্রভাব পড়তে পারেএ ছাড়া হুয়াওয়ের প্রযুক্তি ব্যবহারকারী অন্য দেশের ওপর এর প্রভাব পড়তে পারে

যুক্তরাজ্যে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক উন্নয়নে হুয়াওয়ের যন্ত্রপাতি ব্যবহার করা হবে কিনা, সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগেভাগেই যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয়েছেসোমবার বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য যুক্তরাষ্ট্র থেকে ছয় সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল লন্ডন আসেন

দলটির একজন মার্কিন নিরাপত্তাবিষয়ক উপদেষ্টা ম্যাট পটিংগার বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা ধারাবাহিকভাবে বলে যাচ্ছে, হুয়াওয়ের প্রযুক্তি ব্যবহার করে চীন অপতৎপড়তা চালাবেআর এই বিষয়ে তাদের কাছে যথেষ্ট তথ্য প্রমানাদি রয়েছেআর যেকোনো ধরণের অবকাঠামো, নাগরিকদের ব্যাক্তিগত তথ্য এবং কর্পোরেট খাতে গোপনীয়তা রক্ষা এবং সংবেদনশীল তথ্যের উপর নিরাপত্তা ঝুকি রয়েছে বলেও দাবি করেন তারা

তবে গণমাধ্যমের খবর বলছে, ফাইভ-জি প্রযুক্তিতে ব্যবহৃত কোড চেয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রআর কোম্পানির গোপনীয়তার কারণ দেখিয়ে তা দিতে অস্বীকৃতি জানানোর ফলেই যুক্তরাষ্ট্রের মনঃক্ষুন্নের কারন হয় চীনা কোম্পানিটি

একই দিন এক বিবৃতিতে, হুয়াওয়ে থেকে জানানো হয়, যুক্তরাজ্যের টেলিকম কোম্পানিদের সাথে গত ১৫ বছর ধরে থ্রী-জি, ফোর-জি এবং ব্রডব্যান্ডের যন্ত্রপাতি দিয়ে কাজ করে আসছে দেশটিতেতাই তারা মনে করেননা যুক্তরাজ্যে তাদের নিষিদ্ধ করার পেছনে কোনো যুক্তি থাকতে পারেতবে বিষয়টিকে ভিত্তিহীন অভিযোগের উপর বিবেচনা না করে প্রমাণ সাপেক্ষে সিদ্ধান্ত নেয়ার আহ্বান জানায় কোম্পানিটি

তবে ডিভাইস বাজারে ভালো করার কথা বললেও গুগলের সফটওয়্যার ব্যবহারে বাধা থাকায় ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে বিশ্বের দ্বিতীয় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটিএর মধ্যেই সম্প্রতি ভারতে ফাইভ-জি প্রযুক্তি ট্রায়ালে অংশ নেওয়ার অনুমতি পেয়েছেআর এর মধ্য দিয়ে চীন ও আমেরিকার মধ্যে কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক কোন্দল শুরু হওয়ার পর প্রথম হুয়াওয়ের বিষয়ে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেছে ভারত সরকার

এই বিভাগের আরো খবর

আরো যেসব দেশে করোনা ভাইরাস

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনের প্রানঘাতি...

বিস্তারিত
চীন ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি: শি জিনপিং

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রাণঘাতি করোনা...

বিস্তারিত
ব্রাজিলে ঝড় ও বৃষ্টিতে ৩০ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ব্রাজিলে গত দুই...

বিস্তারিত
চীনে ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনে দ্রুত ছড়িয়ে...

বিস্তারিত
চীনে করোনা ভাইরাসে ৪১ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  চীনে করোনা...

বিস্তারিত
তুরস্কে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শুক্রবার ৬ দশমিক...

বিস্তারিত
স্টিয়ারিং ছাড়াই গাড়ি!

ফারহীন ইসলাম টুম্পাঃ এবার স্টিয়ারিং...

বিস্তারিত
যুক্তরাষ্ট্রবিরোধী বিক্ষোভে কাঁপছে বাগদাদ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাকের রাজধানী...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *