ভারতের পেঁয়াজের বিষয়ে অবস্থা বুঝে সিদ্ধান্ত: বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ০৬:৩৫, ১৬ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৬:৫৮, ১৬ জানুয়ারি ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত সরকারের কাছ থেকে প্রস্তাব পেলে পেঁয়াজ আনা না আনার বিষয়টি বিবেচনা করা হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি। আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) সচিবালয়ে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার পেঁয়াজ আমদানির পর বেশিরভাগ রাজ্য সরকার তাদের চাহিদা প্রত্যাহার করে নেওয়ায় বিপাকে পড়েছে  দেশটির সরকার। আমদানি করা পেঁয়াজ বাংলাদেশকে দেয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন ভারত সরকার

বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আমরা এখনও অফিসিয়ালি কোনো প্রস্তাব পাইনি। প্রস্তাব পেলে বিচার-বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

ভারত যে দামে পেঁয়াজ আমদানি করেছে তার চেয়েও কম দামে বাংলাদেশকে দিতে চাচ্ছে বলে খবর শোনা যাচ্ছে- প্রসঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রাইস কী সেটা ম্যাটার না। আমরা অফিসিয়ালি রকম কোনো প্রোপোজাল পাইনি। তাছাড়া এটা আমাদের বিবেচনায় নেই। ধরনের প্রস্তাব এলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হয়েই আসবে।

গত সোমবার ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য শিল্পমন্ত্রী ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার রকিবুল হকের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে দেশীয় চাহিদার ভিত্তিতে আমদানিকৃত পেঁয়াজ রাজ্য সরকাররা কিনতে রাজি না হওয়ায় বাংলাদেশকে কিনে নেয়ার প্রস্তাব দেন ভারতের বাণিজ্যমন্ত্রী।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক কর্মকর্তা বলেন, ভারত বিদেশ থেকে মোট ৩৬ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির চুক্তি করেছে। ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত দেশটিতে ১৮ হাজার টন পেঁয়াজ পৌঁছেছে। কিন্তু বিভিন্ন প্রদেশের সরকার আমদানিকৃত পেঁয়াজের মাত্র হাজার টন নিয়েছে। অবশিষ্ট পেঁয়াজ মুম্বাইয়ের জওহরলাল নেহরু বন্দরে খালাসের অপেক্ষায়।

বছর ভারতের মহারাষ্ট্র অন্য এলাকায় বন্যার কারণে পেঁয়াজের ফলন ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গত সেপ্টেম্বরে রফতানির ক্ষেত্রে ভারত প্রতি মেট্রিক টন পেঁয়াজের মিনিমাম এক্সপোর্ট প্রাইস (এমইপি) নির্ধারণ করে দেয়। গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে ভারত পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ ঘোষণা করে। এর পর দেশের বাজারে হু হু করে বাড়তে থাকে পেঁয়াজের দাম।  ৩০ থেকে ৪০ টাকার পেঁয়াজের দাম ২৫০ থেকে ২৭০ টাকায়  পৌঁছায়।

দেশে পেঁয়াজের সরবরাহ মূল্য স্বাভাবিক রাখতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে টিসিবির মাধ্যমে সারাদেশে পেঁয়াজ বিক্রি কার্যক্রম বাড়ানো হয়। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হয়নি। এখন  দেশি পেঁয়াজ ১২০ থেকে ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এই বিভাগের আরো খবর

মানিকগঞ্জে গ্লাডিওলাস চাষে লাভবান কৃষকরা

মানিকগঞ্জ সংবাদদাতা: মানিকগঞ্জের...

বিস্তারিত
দ্রুতই ওষুধ শিল্প হবে দেশের শীর্ষ রপ্তানী খাত

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর বসুন্ধরা...

বিস্তারিত
এখনও কমেনি চালের দাম

তারেক সিকদার: বাড়তি দামে বিক্রি হওয়া...

বিস্তারিত
আবারো বিদ্যুতের দাম বাড়ালো সরকার

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাইকারী ও খুচরা...

বিস্তারিত
দিনাজপুরে বিষমুক্ত সবজির ‘কৃষকের বাজার’

দিনাজপুর সংবাদদাতা: দিনাজপুরে কৃষি...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *