দাম কমেনি শীতকালীন সবজির

প্রকাশিত: ০২:৫৪, ১৭ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৫:২৮, ১৭ জানুয়ারি ২০২০

তারেক সিকদার: নতুন পেয়াঁজ বাজারে আসলেও এখনও তেমন একটা কমেনি দাম। সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে বেশকিছু নিত্যপণ্যসহ মসলার দর। এদিকে পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও দাম কমেনি শীতকালীন সবজির। বিক্রেতারা সরবরাহ কমের অজুহাত দিলেও তা মানতে নারাজ ক্রেতারা।

একজন বিক্রেতা জানান, বাজারে এসেছে পর্যাপ্ত দেশি পেঁয়াজ। কিন্তু তেমন কমেনি আকাশ ছোঁয়া এই পণ্যটির দাম। বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকা কেজি দরে। তবে কমে আসবে দাম এমনই প্রত্যাশার কথা জানালেন এই বিক্রেতা।

এছাড়া রাজধানীর বাজারে এখন নানারকম সবজির সমাহার থাকলেও কমছে না দাম। শীতের সবজি ফুলকপি, বাধাঁকপি, শিম, টমেটো, পেয়াঁজ পাতাসহ বেশিরভাগ সবজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকার ওপরে। আর ঝিঙা, চিচিঙ্গা, বরবটির দাম ১০০ টাকার কাছাকাছি।

এদিকে স্বস্তি নেই মনোহারি পণ্যেও। দাম বেড়েছে বেশ কিছু মসলারও। আদা, মশুর ডাল ও পোলাও চাল বেড়েছে কেজিপ্রতি ১০ টাকা। আর রসুন, চিনি ও ছোলা বেড়েছে ৫ টাকা। কমেনি বাড়তি দামে বিক্রি হওয়া ভোজ্যতেল ও শুকনা মরিচের দামও।

কিছু মাছের দাম সহনীয় থাকলেও অনেক মাছের দামই বাড়তি। ইলিশ আকারভেদে কেজি ৬শ’ থেকে ১ হাজার টাকা। টেংরা, ছোট চিংড়ি ও বাতাশি মাছ বিক্রি হচ্ছে ৬শ’ টাকা কেজি।

মুরগী ও গরুর মাংসের দাম অপরিবর্তিত থাকলেও নির্ধারিত ৭৫০ টাকা থেকে বেড়ে খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৯শ’ টাকায়।

এই বিভাগের আরো খবর

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *