নীলফামারীতে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে হয়রানি

প্রকাশিত: ০৯:১২, ২৯ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৯:৫২, ২৯ জানুয়ারি ২০২০

নীলফামারী সংবাদদাতা: নীলফামারী বিআরটিএ অফিসে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন ও ড্রাইভিং লাইসেন্স করতে গিয়ে হয়রানির শিকার হচ্ছেন যানবাহন মালিক ও চালকরা। ব্যাংকে লাইসেন্সের টাকা জমা দিতে গিয়েও ভোগান্তিতে পড়ছেন তারা। হয়রানি কমাতে প্রক্রিয়া আরও সহজ করার দাবি তাদের।

এদিকে জনবল সংকটের জন্য এমন সমস্যা হচ্ছে বলে জানান বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ।

সড়ক পরিবহন আইন কার্যকর হওয়ার পর নীলফামারীতে ড্রাইভিং লাইসেন্স ও রেজিস্ট্রেশন করার পরিমান বেড়ে গেছে কয়েকগুণ। যানবাহন মালিক ও চালকরা প্রতিদিনই ভিড় করছেন স্থানীয় বিআরটিএ অফিসে। তবে এখানে নানাভাবে হয়রানির শিকার হওয়ার অভিযোগ করলেন তারা।

ভোগান্তির এখানেই শেষ নয়। জেলা সদরে রেজিস্ট্রেশন ও লাইসেন্সের ফি জমা দেয়ার কোন সুযোগ নেই। ফলে ৩০ কিলোমিটার দূরে সৈয়দপুর শহরের দুটি প্রাইভেট ব্যাংকে যেতে হয় ফি জমা দিতে। হয়রানি কমাতে প্রক্রিয়া সহজ করার দাবি যানবাহন মালিক ও চালকদের।


নীলফামারী বিআরটিএ পরিদর্শক নূরুল ইসলাম বলেন, জনবল সংকটের কারণে কিছু সমস্যা হচ্ছে। তবে এর মধ্যেও সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তারা।

লাইসেন্স পাওয়ার প্রক্রিয়া সহজ করা গেলে, হয়রানি কমার পাশাপাশি সরকারের রাজস্ব আয় বাড়বে বলে মনে করেন ভুক্তভোগীরা।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর

দৃশ্যমান পদ্মা সেতুর পৌনে ৪ কিলোমিটার

শরীয়তপুর সংবাদদাতা: পদ্মা সেতুতে...

বিস্তারিত
ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন বিদেশীরাও

নিজস্ব প্রতিবেদক: একুশের প্রথম প্রহর...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *