বিশ্ব বাজারে বাড়ছে বাংলাদেশি জাহাজের চাহিদা

প্রকাশিত: ১১:২৩, ৩১ জানুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৫:০১, ৩১ জানুয়ারি ২০২০

মহসিন চৌধুরী: আধুনিকায়ন ও বিশ্ব মেরিটাইম অর্গানাইজেশনের আইনের মুখে প্রতিবছর বহু জাহাজ স্ক্র্যাপ বা বাতিল ঘোষিত হচ্ছে। ফলে আর্ন্তজাতিক সমুদ্র বানিজ্যে নতুন জাহাজের চাহিদা বাড়ছে দ্রুত। আগামী ৫ থেকে ১০ বছরে সমুদ্র বানিজ্যে এমন চাহিদা পূরণে দেশের জাহাজ নির্মাণ ইয়ার্ডগুলো সক্ষমতা অর্জন করেছে।

 

বিশ্বের সবচেয়ে সস্তা জনশক্তিতে জাহাজ নির্মাণ সম্ভব হচ্ছে দেশে। তাই দেশীয় জাহাজ ক্রেতাদের পাশাপাশি বিদেশী ক্রেতারাও আকৃষ্ট হচ্ছে। এক সময় তৈরী পোষাক শিল্প এ ধরনের সুযোগ নিয়ে বিকশিত হয়ে আজ সবচেয়ে বড় রফতানি খাত। জাহাজ নির্মাণ শিল্পও এখন দ্রুত বিকশিত হচ্ছে।

সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনার কারনে আগামী ৫ বছরে বিভিন্ন ধরণের বোট, ফেরি, ড্রেজার, গবেষণা জাহাজ, টাগ, বার্জ, কোষ্টার, লাইটার জাহাজ তৈরীর চাহিদা রয়েছে, যা ৩০ থেকে ৪০ হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য। এসব জাহাজ এক সময় বিদেশ থেকে আমদানি করা হত। এখন দেশেই তৈরী সম্ভব।

সমুদ্রগামী মাঝারী জাহাজ তৈরীর জন্য দেশের ১৭টি ইয়ার্ডে ঝুঁকছে ভারত ,ইউরোপ ও আফ্রিকাসহ বিভিন্ন দেশের ক্রেতারা। ইতোমধ্যে প্রায় অর্ধশত জাহাজ নির্মাণ করে বাজার সৃষ্টি করেছে স্থানীয় উদ্যোক্তরা, এখন তারা চান সরকারি প্রনোদনা আর পরিবেশ বান্ধব নীতিমালা।

গবেষনা সংস্থাগুলোর মতে, আগামী ৫ বছরে বিশ্ব বাজারে ৬৫০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের ২০ হাজার ছোট জাহাজের চাহিদা আছে। এর মাত্র এক শতাংশ কাজ ধরতে পারলে বছরে ৪ বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ৪ হাজার কোটি টাকা আয় হতে পারে দেশে। তৈরী পোষাক রফতানি খাতের পরই নতুন সম্ভাবনা নিয়ে এগুচ্ছে জাহাজ নির্মান শিল্প।

এই বিভাগের আরো খবর

যেসব হত্যাকাণ্ডে কষ্ট ও কান্নার বছর ২০১৯

আশিক মাহমুদ: অপরাধ মাত্রই উদ্বেগের,...

বিস্তারিত
পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দামে অস্বস্তিতে পড়ে সরকার

কাজী বাপ্পা: ২০১৯ সালে বাজারে আলোচনার...

বিস্তারিত
বছরজুড়েই যেসব ঘটনায় নজর কেড়েছে ভারত

তামান্না জাহান: বছরজুড়েই বিশ্বে নজর...

বিস্তারিত
২০১৯ সালের সবচে আতংকের নাম এডিস মশা  

লাবনী গুহ: এডিস মশা বিদায়ী ২০১৯ সালের...

বিস্তারিত
বছরজুড়ে সমালোচিত ডাকসু নেতাদের কর্মকান্ড

পার্থ রহমান: দুই যুগেরও বেশি সময় পর...

বিস্তারিত
বিদায়ী বছরে অপরাধ জগতের আলোচিত নাম ‘ক্যাসিনো’

নাঈম আল জিকো: প্রকৃতিতে নয়, বিদায়ী বছর,...

বিস্তারিত
বিদায়ী বছরে দুই আগুনেই কেড়ে নিয়েছে শতাধিক প্রাণ

আশিক মাহমুদ: অগ্নিকান্ড ও জীবন্ত দগ্ধ...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *