ভোটের হার কমায় দু’দলই দায়ী: বিশেষজ্ঞ

প্রকাশিত: ০৪:৫৪, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১১:৫২, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: নির্বাচন কমিশনের হিসাবে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ৩০ ভাগেরও কম ভোটার ভোট দিয়েছেন। ভোটের হার কম হওয়ার জন্য, দুই বড় রাজনৈতিক দলকে দায়ী করলেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন পর্যবেক্ষক এবং বিশিষ্টজনরা। তাদের বক্তব্যের কারণে মানুষ কিছুটা ভীত ছিল। 
তবে নির্বাচন কমিশনও জনগনের আস্থা ফিরিয়ে আনতে পারেনি বলে মত তাদের। ইভিএমে ভোট হওয়ায় কারচুপি বন্ধ হয়েছে বলে মনে করেন পর্যবেক্ষকরা। 
প্রথবারের মত ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনে মানুষ ইলেকট্রনিক ভোট যন্ত্র-ইভিএম এ ভোট দিয়েছেন। এতে জয়ী হয়েছে ইভিএম, আর প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে নির্বাচন। মানুষ ভোট বিমুখ হয়ে পড়েছে তারই প্রমান মিললো ভোটকেন্দ্রে কম ভোটারের উপস্থিতি। ভোটের ফলাফল বলছে দুই সিটিতে শতকরা ৩০ ভাগ ভোটও পড়েনি।

ইভিএমে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্তকে নির্বাচন কমিশনের উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা বলে কেউ কেউ মনে করলেও এই পদ্ধতি দেশে ভোট কারচুপি কমানোর বড় মাধ্যম মনে করছেন নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা। আগে যেভাবে ব্যালটে সীল দিয়ে একজনের ভোট আরেকজন দিয়েছেন ইভিএম এ তা আর সম্ভব হবেনা।

নির্বাচন পর্যবেক্ষক ও সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার এম সাখাওয়াত হোসেন বলছেন, ভোটের হার কমে যাওয়া পদ্ধতির জন্য নয়, বরং নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দলগুলোর ভোটের পরিবেশ এবং পদ্ধতি নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণাই দায়ি। এতে মানুষ একদিকে আস্থা হারিয়েছে ইভিএমে।

নির্বাচন পর্যবেক্ষক নাজমুল আহসান কলিমুল­াহ বলেন, সরকারি ছুটির সময় নির্বাচন হওয়ায় এবং শহরজুড়ে যানবাহন বন্ধ করে দেয়াও ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার অন্যতম কারন। 

এসব নিয়ে সরকার এবং নির্বাচন কমিশনের আরো ভেবে সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত বলে মনে করেন এই বিশিষ্টজনরা।

এই বিভাগের আরো খবর

সরকারকে সহযোগিতার আশ্বাস ফখরুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা সংকট...

বিস্তারিত
সানাউল্লাহ মিয়ার দাফন সম্পন্ন

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপি’র আইন বিষয়ক...

বিস্তারিত
গুজব সৃষ্টিকারীদের ধরিয়ে দিন: কাদের

নিজস্ব সংবাদদাতা: নভেল করোনাভাইরাস...

বিস্তারিত
ঘরে ফিরলেন রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক: অবশেষে বাড়ি ফিরলেন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *