বন্ড সুবিধায় আনা পণ্য খোলাবাজারে বিক্রি করছে অসাধু চক্র

প্রকাশিত: ১০:৩২, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ১২:০৯, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ইউসুফ রানা: বন্ড সুবিধার অপব্যবহার করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে অসাধু চক্র। আইনি দুর্বলতা কারণে বন্ড সুবিধার অপব্যবহার পুরোপুরি বন্ধ করা যাচ্ছে না বলে মনে করেন রাজস্ব বোর্ডের সাবেক কর্মকতা এবং ব্যবসায়ীরা। বন্ড সুবিধার অপব্যবহারে ৪৬২টি মামলায় আটকে রয়েছে যা নিস্পত্তি হলে সরকারের আয় হবে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা।

শতভাগ রপ্তানি করার শর্তে বন্ড লাইসেন্সের মাধ্যমে ব্যবসায়িদের শুল্ক মুক্ত কাঁচামাল আমদানির সুবিধা দেয় সরকার। এতে বছরে ৩০ হাজার কোটি টাকা কর ছাড় দিতে হয়। কিন্তু কিছু অসাধু কিছু ব্যবসায়ী এই সুবিধায় আমদানি করা পণ্য অবৈধভাবে খোলা বাজারে বিক্রি করছে। রাজধানীর ইসলামপুর, নয়াবাজারসহ পুরান ঢাকার বিভিন্ন মার্কেটে প্রকাশ্যে বিক্রি হচ্ছে বন্ড সুবিধায় আনা বিভিন্ন পণ্য।

এতে এক দিকে দেশীয় শিল্প যেমন ক্ষতি হচ্ছে, তেমনি সরকারও বছরে প্রায় ৯০ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে বলে জানিয়েছেন রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তা এবং ব্যবসায়ীরা।

এই চক্রের বিরুদ্ধে নিয়মিত অভিযান চালিয়ে মালামাল আটক এবং মামলা করে এনবিআরের বন্ড অফিস এবং শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর। ২০১৯ সালে ১৭৫টি মামলা হয়। বন্ড লাইন্সেস স্থগিত করা হয় ৩৭১ টি প্রতিষ্ঠানের।

বন্ড দুর্নীতির বেশিরভাগ মামলা কাস্টমস আইনে হওয়ায় কাউকে গ্রেফতার করা হয় না। লাইসেন্স বাতিল ও অর্থিক জরিমানা হলেও, এই চক্রের সদস্যরা থাকেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে। আর মামলা নিস্পত্তিতেও রয়েছে দীর্ঘসূত্রতা।

অটোমেশনের আওতায় আনতে পারলে এই সমস্যা সমাধান হবে বলে মনে করেন এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া।

আইনের দুর্বলতা দূর করা এবং মামলা দ্রুত নিস্পত্তি করা গেলে বন্ড সুবিধার অপব্যবহার কমবে বলে জানান তিনি।

 

এই বিভাগের আরো খবর

বাংলাদেশীদের বিদেশযাত্রা নেমেছে অর্ধেকে

রীতা নাহা: করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে চীনে...

বিস্তারিত
বুলেট ট্রেন আসছে বাংলাদেশে !

ইমদাদুল্লাহ বাবু: দ্রুত গতির বুলেট...

বিস্তারিত
ভুয়া ফেসবুক একাউন্ট ২৭.৫ কোটি

অনলাইন ডেস্ক: সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক...

বিস্তারিত
দেশে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে অগ্নিকাণ্ডের...

বিস্তারিত
করোনার অজুহাতে আদা-রসুনের দাম বৃদ্ধি

মেহের মনি: করোনা ভাইরাসের প্রভাবে চীন...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *