নিত্যপণ্যের দামে নেই স্বস্তি

প্রকাশিত: ০৩:৪৩, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৩:৪৪, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

তারেক সিকদার: সবজির দাম কমছেই না। এর সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে চালের দাম। দাম বাড়ার জন্য মিল মালিকদের দূষছেন খুচরা বিক্রেতারা। এদিকে কমার লক্ষণ নেই পেয়াঁজ, রসুন আদার দাম। এসব মসলার দাম না কমার পেছঁনে ভারতের পাশাপাশি চীন থেকে আমদানী বন্ধ হওয়াকেই দূষছেন ব্যবসায়ীরা।

বাঙ্গালীর খাদ্য তালিকার প্রধান অনুসঙ্গ চাল। সেই চালের দামও এখন বাড়তি। সপ্তাহের ব্যবধানে মিনিকেট চাল ৫০ থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়। আটাশ মোটা চাল কেজিপ্রতি থেকে টাকা বেড়েছে। নাজির শাইল চালও ৫০ টাকা থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকায়। নতুন চাল বাজারে এলে দাম কমবে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।

এদিকে লাফিয়ে বাড়ছে সবজির দাম। বরবটি, করলা কচুরমুখি বিক্রি হচ্ছে থেকে ১৫০ টাকায়। কাঁচামরিচ, চিচিঙ্গা, বেগুন, মটর শুটি শিমের দাম ৬০ থেকে ৭০ টাকা।

স্বস্তি নেই মসলার বাজারেও। চীনে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে আমদানি বন্ধ হওয়ায় দাম বেড়েছে এসব পণ্যের। রসুন বিক্রি হচ্ছে ১৯০ টাকা কেজি দরে। ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে আদা। আর বাড়তি দামে বিক্রি হওয়া পেঁয়াজের ঝাঁঝও কমেনি বাজারে।

তবে খুব বেশি স্বস্তি না থাকলেও তেমন বাড়েনি মাছের দাম। বাজারে রয়েছে রূপালি ইলিশের সমাহার। যদিও এখনও বাড়তির তালিকায় রয়েছে ছোট মাছ।

এছাড়া অপরিবর্তিত রয়েছে গরু, মুরগী খাসির মাংসের দাম।

এই বিভাগের আরো খবর

নারায়ণগঞ্জ ও রাজধানীর ৫২ এলাকা লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাসে...

বিস্তারিত
করোনা রোগী বহনে বিশেষ হেলিকপ্টার

অনলাইন ডেস্ক: দেশে করোনা ভাইরাসে...

বিস্তারিত
কবরস্থানগুলোতে জিয়ারত আপাতত বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাসের...

বিস্তারিত
রাজধানীতে কমেছে যান ও মানুষের চলাচল

নিজস্ব সংবাদদাতা: রাজধানীতে কমেছে...

বিস্তারিত
বঙ্গবন্ধুর খুনি মাজেদ কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতির জনক...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *