প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হলে ১ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ পাবে আমানতকারীরা

প্রকাশিত: ০২:২৬, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

আপডেট: ০৮:১৫, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

মেহের মণি: ব্যাংক আমানত বীমা আইন সংশোধন করে আমানত সুরক্ষা আইন করতে যাচ্ছে সরকার। এতে ব্যাংক ছাড়াও অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া বা বন্ধ হয়ে গেলে আমানতকারীরা তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষতিপূরণ হিসেবে একলাখ টাকা পাবেন। বিদ্যমান আইনে আমানতের পুরো অর্থ ফেরত পাওয়ার বিধান আছে। তবে ব্যাংক বিশ্লেষকরা বলছেন, আইনের দুর্বলতার কারণে পুরো ফেরত পাওয়া কঠিন। তাই এই আইনের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট অন্য আইনগুলোরও সংশোধন প্রয়োজন।

ব্যাংক বন্ধ হয়ে গেলে এতদিন আমানত বীমা আইন-২০০০ এর আওতায় আমানতকারীদের এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হত আমানত বীমা ট্রাস্ট থেকে। এই আইন এতদিন কেবল ব্যাংকের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য ছিল। তবে ব্যাংকের পাশাপাশি আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকেও যুক্ত করতে ২০১৭ সালে আইনটি সংশোধনের উদ্যোগ নেয়া হয়। ক্ষতিপূরণ হিসেবে আগের মত এক লাখ টাকা রেখেই আইনটির একটি খসড়া প্রকাশ করে সরকার।

খসড়ায় বলা হয়েছে, গ্রাহকদের ক্ষতিপূরণ দিতে আমানত সুরক্ষা ট্রাস্ট তহবিল গঠন করা হবে। যেখানে ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত হারে প্রিমিয়াম পরিশোধ করবে।

সম্প্রতি পিপলস লিজিং বন্ধের উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর আগে ২০০৬ সালে ওরিয়েন্টাল ব্যাংক দেউলিয়া হওয়ার পর কেন্দ্রীয় ব্যাংক দায়িত্ব নিয়ে তার ৮৬ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করে আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের কাছে। ব্যাংকটির মালিকানায় পরিবর্তন হলেও গত ১৪ বছরেও অধিকাংশ আমানতকারী তাদের অর্থ ফেরত পায়নি। এক্ষেত্রে আইনের দুর্বলতা রয়েছে বলে মনে করেন অর্থনীতিবিদরা।

ব্যাংক বিশ্লেষকরা বলছেন, ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হলে তার সমস্ত সম্পদ বিক্রি এবং উদ্ধার করে আমানতকারীদের অর্থ ফেরত দেবে সরকার। তবে আমানতের অর্থের তুলনায় ব্যাংকের সম্পদ কম হলে আমানত ফেরত পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা পড়েন আমানতকারীরা। 

তবে নতুন আমানত সুরক্ষা আইনের আওতায় এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের বিষয়টিতে পরিবর্তন আনা হচ্ছে। অর্থ মন্ত্রনালয়ে আইনটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে যেখানে ক্ষতিপূরণের অর্থ বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এই বিভাগের আরো খবর

এত বিপুল মৃতদেহ কিভাবে সৎকার হচ্ছে?

ফারহীন ইসলাম: ইতালির মিলান শহর, যে শহর...

বিস্তারিত
বাজারের সব মাস্ক করোনা প্রতিরোধী নয়

লাবণী গুহঃ শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে...

বিস্তারিত

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

মন্তব্য প্রকাশ করুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না. প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা আছে *