ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬

2019-04-22

, ১৬ শাবান ১৪৪০

সরকারের অগ্রাধিকার নীতিতে রয়েছে প্রতিবন্ধী অধিকার প্রতিষ্ঠা

প্রকাশিত: ০১:২৩ , ১৬ জুন ২০১৭ আপডেট: ০১:২৩ , ১৬ জুন ২০১৭

কূটনৈতিক প্রতিবেদক: নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেছেন, প্রতিবন্ধীদের অধিকার রক্ষা ও মৌলিক স্বাধীনতাকে অগ্রাধিকার নীতি হিসেবে বিবেচনায় নিয়ে তাদের উন্নয়নে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সদরদপ্তরে ‘প্রতিবন্ধীদের অধিকার রক্ষা কমিটি অনুস্বাক্ষরকারী দেশসমূহের ১০ম সম্মেলন’এ একথা বলেন তিনি।
    
স্থায়ী প্রতিনিধি আরও বলেন, বাংলাদেশ ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার রক্ষা কমিটি (সিআরপিডি)’র অষ্টম অনুস্বাক্ষরকারী দেশ। তাছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রণীত বাংলাদেশ সংবিধানের নীতিমালার সাথে সিআরপিডির নীতিমালা সামঞ্জস্যপূর্ণ। বাংলাদেশ সরকার সিআরপিডি অনুস্বাক্ষর করা ছাড়াও প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক ব্যক্তিদের কল্যাণে ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার সুরক্ষা আইন ২০১৩’ এবং ‘নিউরোডেভোলপমেন্টাল ডিজঅ্যাবিলিটি প্রটেকশান ট্রাস্ট অ্যাক্ট ২০১৩ প্রণয়ন করেছে”।
    
দেশের প্রতিবন্ধী নাগরিকদের সমমর্যাদা, অধিকার, পূর্ণ অংশগ্রহণ এবং সমান সুযোগ প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বতর্মান সরকার যেসকল দৃষ্টান্তমূলক পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করেছে তা তুলে ধরে রাষ্ট্রদূত মোমেন বলেন, “বাংলাদেশ সরকার প্রতিবন্ধী নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্য পূর্ণ সুযোগসুবিধা সম্বলিত অটিজম রিসোর্স সেন্টার ও হোস্টেল প্রতিষ্ঠা করেছে। একটি পৃথক প্রতিবন্ধী কমপ্লেক্স এবং প্রতিবন্ধী স্পোর্টস কমপ্লেক্স প্রতিষ্ঠার জন্য প্রকল্প অনুমোদন করেছে। এই কমপ্লেক্স হবে প্রতিবন্ধী, অটিজম ও নিউরোডেভোলপমেন্ট ডিজঅর্ডার আক্রান্ত ব্যক্তিবগের্র জন্য সেন্টার অব এক্সেলেন্স”।
    
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অটিজম বিষয়ক উপদেষ্টা ও তাঁর কন্যা সায়মা হোসেন দেশের অটিজম ও অন্যান্য নিউরোডেভোলপমেন্টাল ডিজঅর্ডার আক্রান্ত ব্যক্তিদের অধিকার রক্ষা ও কল্যাণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে চলেছেন।

বাংলাদেশ জাতিসংঘে "অটিজম স্পেকট্রাম ডিসঅর্ডার (এএসডি), ডেভোলপমেন্টাল ডিজঅডার্রস (ডিডি) এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য অক্ষমতার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি, পরিবার ও সমাজের আর্থ-সামাজিক চাহিদা সম্বলিত রেজুলেশন উত্থাপন করে যা সাধারণ পরিষদে সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়। প্রতি বছর  দুই এপ্রিল 'বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ মিশন হাই লেভেল ইভেন্ট আয়োজন করে থাকে।
রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন বলেন, বতর্মান সরকার দারিদ্র্য বিমোচন ও সকল উন্নয়ন প্রচেষ্টায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে প্রতিশ্র“তিবদ্ধ, যা এসডিজি ২০৩০’এর ১৭টি লক্ষ্য অর্জনে সহায়তা করবে এবং যেখানে কেউই বাদ পড়বে না।

এই বিভাগের আরো খবর

শ্রীলংকায় হামলা চালায় 'ন্যাশনাল তৌহিদ জামাত', মধ্যরাত থেকে জরুরি অবস্থা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : শ্রীলংকায় রোববারের ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলার জন্য দেশটির স্বল্প পরিচিত স্থানীয় ইসলামী জঙ্গি সংগঠন ‌'ন্যাশনাল তৌহিদ...

কলম্বিয়ায় ভূমিধসে ১৭ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কলম্বিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে ভূমিধসে কমপক্ষে ১৭ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। এতে ক্ষতিগ্রস্ত...

শ্রীলংকায় বিস্ফোরণে নিহত শিশু জায়ানের মরদেহ দেশে পৌঁছাবে বুধবার

নিজস্ব প্রতিবেদক: শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় নিহত শিশু জায়ান চৌধুরীর মরদেহ দেশে আনার প্রক্রিয়া চলছে। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ...

প্রবাসীদের কল্যাণে আরো পদক্ষেপ নেয়া হবে : ব্রুনাইয়ে সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। তাদের...

0 মন্তব্য

আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Message is required.
Name is required.
Email is